মেইন ম্যেনু

স্কটল্যান্ডে আকাশে দেখা গেলো অজানা উড়ন্ত বস্তু! (দেখুন ভিডিও)

অজানা উড়ন্ত বস্তু ‘ইউএফও’ ঝুলে থাকতে দেখা যায় স্কটল্যান্ডের একটি ব্যস্ততম রাস্তায়। গাড়ির ভেতরের ড্যাশক্যাম থেকে ঘটনাটি ধারণ করা হয়েছে। ভিনগ্রহের মহাকাশযানকে ‘ইউএফও’ বলা হয়। একজন বিস্মিত মোটরযাত্রী তার গাড়ির ড্যাসক্যামের মাধ্যমে ভিনগ্রহের মহাকাশযান থেকে নির্গত আলোর ছবি ধারণ করেছেন।

তিনি তখন স্কটল্যান্ডের এডিনবরারের এক রাস্তা দিয়ে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তখন তিনি উজ্জ্বল গোলাকার আলো দেখে অবাক হন। তিনি হার্মিস্টন গেটের সামনে একটি উজ্জল গোলাকৃতি দেখতে পান। কিছুক্ষণ পরেই সেটি অদৃশ্য হয়ে যায়। ৩২ বছর বয়সী লি ফ্রেম ঘটনাটি গাড়ির ড্যাসক্যামের মাধ্যমে ধারণ করেন।

তিনি ডেইলি সান-কে বলেন, তিনি নিশ্চিত, তিনি যা দেখেছেন তা প্লেন ছিলো না। তিনি বলেন, সে আলো স্থির ছিলো। মনে হয়েছে, সেটি শুধু আকাশে শুন্যের উপর বসে ছিলো। ফ্রেইম বলেন, ‘আমার মনে হয় এটি একটি ‘ইউএফও’ হয়ে থাকতে পারে। আমি কি দেখছি তা বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।’ এটি এই মাসের মধ্যে দ্বিতীয় ঘটনা।

স্কটল্যন্ডের পার্থশায়ারের কাছে এরকম আরেকটি ‘ইউএফও’ দেখতে পাওয়া যায়। ডাইসার্ট থেকে ৬৫ বছর বয়সী জন ম্যাকডোনাল্ড বলেন, তিনি একটি অপরিচিত মহাকাশযান দেখেছেন, সেটি তার কাছ থেকে মাত্র ৫০ থেকে ৭০ গজ দূরে ছিলো। তিনি দাবি করেন, যানটি অদৃশ্য হওয়ার আগে তার বাড়ির কাছাকাছি ঘোরাফেরা করেছে।

ব্রিস্টল থেকে গতমাসে ৪১ বছর বয়সী ফিওনা পাওয়েল একটি ‘ইউএফও’ দেখেছেন বলে জানান। তিনি বলেন, সেভার্ন সমুদ্র সৈকতে তার সন্তান ও বন্ধুদের সঙ্গে হাঁটতে গিয়ে একটি ‘ইউএফও’ দেখতে পান এবং ছবিও তোলেন।

খুব কাছ থেকে ছবিটি নিরীক্ষণ করলে দেখা যাবে, ছবির এক কোণে উড়ন্ত যানের অস্তিত্ব দেখা যাচ্ছে। মিসেস পাওয়েল বলেন, ওই ঘটনার আগে তিনি মহাজাগতিক যানবাহনের অস্তিত্ব সম্পর্কে সন্দিহান ছিলেন। কিন্তু এখন তিনি একটু ভিন্নভাবে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন…






মন্তব্য চালু নেই