মেইন ম্যেনু

স্কুলছাত্রীকে জোর করে চুমু, ভিডিও ইন্টারনেটে

পটুয়াখালী: পটুয়াখালীর দুমকিতে বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক স্কুলছাত্রীকে জোর করে চুম্বন দিয়ে তার ছবি তুলে ফেসবুক ও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়েছে এক বখাটে যুবক।

দুমকি উপজেলার সন্তোষদি-চরগরবদি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এমন ঘটনায় মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ওই স্কুলছাত্রীর মা শাহিনুর বেগম সুবিচার চেয়ে দুমকি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ঈদ-পরবর্তী সময়ে বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় ক্ষিপ্ত হয়ে চরগরবদি আবুল কাসেম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুলতান মুন্সির বখাটে ছেলে পান্না মুন্সি (২২) একই বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১৩) জোড়পূর্বক চুম্বন করে এ দৃশ্য মোবাইল ক্যামেরায় ধারণ করে। এ ঘটনা কাউকে জানালে ধারণকৃত ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয়-ভীতি দেখায়। কিশোরী লোকলজ্জার ভয়ে এ ঘটনা কাউকে না জানালেও কয়েকদিন পড়েই ভিডিওটি বন্ধুদের মাধ্যমে এলাকায় ছড়িয়ে দেয়।

প্রতিবেশীদের কাছে জানতে পেয়ে গত ৮ সেপ্টেম্বর রাতে ওই ছাত্রীর মা সাহিনুর বেগম বখাটে পান্না মুন্সিসহ অন্যান্য সহযোগীদের বিরুদ্ধে দুমকি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম খান ফারুকী জানান, বখাটে যুবক ওই ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন করার ২৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বখাটেদের গ্রেপ্তারে পুলিশ ইতোমধ্যে অভিযান শুরু করেছে। গত ৮ সেপ্টেম্বর অভিযোগ দিলেও অভিযুক্তরা পালিয়ে যেতে পারে এই ভয়ে ওসি ব্যাপারটি এতদিন চাপা দিয়ে রেখেছিলেন বলে জানায়।






মন্তব্য চালু নেই