মেইন ম্যেনু

স্কুলে শিক্ষিকার বিয়ের রান্না, পিছিয়ে গেলো পরীক্ষা

সকালে পরীক্ষা, তাই সব প্রস্তুতি নিয়ে এসে পরীক্ষার্থীরা দেখেন স্কুল মাঠে চলছে রান্না-বান্নার কাজ। তাই পরীক্ষা পিছিয়ে গেল ঘণ্টাখানেক।

বুধবার সকালে পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি শহরের কাছে কালিয়াগঞ্জ উত্তমেশ্বর হাইস্কুলে ঘটে এমন ঘটনা। আর এতে ক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা।

জানা গেছে, সম্প্রতি মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা সুজাতা মণ্ডল নামে স্কুলের এক শিক্ষিকার বিয়ে হয়। সেই অনুষ্ঠানে স্কুলের বেশিরভাগ শিক্ষক উপস্থিত থাকতে না পারায় ওইদিন স্কুলের শিক্ষক এবং কর্মীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। মেন্যুও ছিল বিয়ের সঙ্গে মানিয়ে।

বুধবার সকাল থেকেই মাঠে রান্নার আয়োজন শুরু হয়। স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং কর্মীদের একাংশই রান্নার তদারকিতে ছিলেন। অথচ ওইদিন বেলা ১১টা থেকে সপ্তম থেকে নবম শ্রেণীর শরীরিক শিক্ষা ও কর্মশিক্ষার পরীক্ষা শুরুর কথা ছিল। কিন্তু রান্নার প্রস্তুতিতে বেলা গড়িয়ে যাওয়ায় পরীক্ষা শুরু হতে দেরি হবে বলে জানিয়ে দেয়া হয়। এরপরই অভিভাবকরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এর জেরে ঘণ্টাখানেক পর স্কুলের পরীক্ষা শুরু হয়।

রঞ্জন রায় নামে এক অভিভাবক বলেন, ‘স্কুলে পৌঁছে দেখি রীতিমতো বিয়ে বাড়ির ভোজের আয়োজন চলছে। রান্নার সুবাসে গোটা চত্বর মম করছে। যাই হোক তাই বলে পরীক্ষা পিছিয়ে দেবে?’



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই