মেইন ম্যেনু

স্কুল ছাত্র কামরুল হত্যাকারির ফাঁসির দাবিতে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ

ভোলার বোরহাউদ্দিন উপজেলার কুন্জের হাটে স্কুল ছাত্র কামরুল হত্যাকারির ফাঁসির দাবিতে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। আজ শনিবার সকাল ১১টায় শুরু হয়ে প্রায় ঘন্টাখানেক থাকে। এতে কামরুলের স্কুলের সহপাঠী ও গ্রামবাসীসহ শত শত লোক মানব বন্ধনে অংশ গ্রহন করেন। এসময় তারা মূল হত্যাকারিকে ধরে ফাঁসির রায় কার্যকর করার জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানান। । উল্যেক্ষ,নিহত কামরুল ভোলা জেলার বোরহান উদ্দিন উপজেলার ৪ নং কাচিয়া ইউনিয়নের ফুলকাচিয়া গ্রামের অজিবল হক বেপারী বাড়ির অজিবল হক বেপারীর ছোট ছেলে জাহাংগীরের একমাত্র পুত্র । সে দক্ষিন ফুলকাচিয়া কালির হাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র। পিতামাতা তাদের একমাত্র সন্তানকে হারিয়ে এখন পুত্র শোকে কাতর। কেউই থামাতে পারছে না তাদের গগনবিদারী আহাজারি। পুরো এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া । তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে তার সহকর্মি ও শিক্ষকগন। খুনিদের ফাসির দাবী জানিয়ে বোরহান উদ্দিন উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করছে।

গত ৩১ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার সময় কামরুল তার মাকে এশারের নামাজ আদায় করার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে আর বাসায় ফিরে নি। ওই দিন রাত আনুমানিক পৌনে ১২ টার সময় অপহরনকারীরা কামরুলের বাবার মোবাইলে কল দিয়ে কামরুলকে জীবিত অবস্থায় পেতে হলে ১ লক্ষ টাকা মুক্তিপন লাগবে বলে সাফ জানিয়ে দেয় । এ সময় তার পিতার সাথে অপহরনকারীদের বাদ- বিতর্ক হলে অপহরনকারীরা ফোনটি কেটে দেয়। এরপর ওই ফোন নাম্বারে অনেক চেষ্টা করেও আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি। অপহরন কারীরা ফোন নাম্বারটি বন্ধ করে রাখে। ঘটনার ৩ দিন পর সোমবার কামরুলের বাবা জাহাংগীর বোরহান উদ্দিন থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে একটি অপহরন মামলা দায়ের করেন। গত বুধবার আনুমানিক ২ টার সময় বাড়ির পাশে মাছের ঘেরের মধ্যে কচুরি পানার নিচে কামরুলের মরদেহ দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে উদ্ধার করে। লাশ উদ্ধারের পর লাশের গায়ে আঘাতের চিহ্ন থাকায় ওই দিন বিকেলে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা মর্গে প্রেরন করেন। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য দুই জনকে আটক করা হয়েছে। অনেকদিন পেরিয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত আসল অপরাধীকে পুলিশ খুঁজে বের করতে পারে নি।নফলে প্রকৃত অপরাধীকে তার প্রাপ্য সাজা দেওয়া যাবে কি না এ নিয়ে জনমনে সন্দিহান রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই