মেইন ম্যেনু

স্কুল ড্রেস না পরায় শিক্ষার্থীকে পেটালেন শিক্ষক

স্কুল ড্রেস পরে না আসায় এক শিক্ষকের উপর্যুপরি বেতের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। গত শনিবার শিক্ষার্থী রজনী খাতুন (১২) স্কুল ড্রেস পরে না আসায় শাহীনুল ইসলাম শাহীন নামে এক শিক্ষক বেত্রাঘাত করে। বেতের আঘাতে গুরুতর আহত হওয়ায় রজনীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পাবনার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের রামনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।। শিক্ষকের বেত্রাঘাতে গুরুতর অসুস্থ শিক্ষার্থী দোলং গ্রামের সুরুজ আলীর মেয়ে।

স্থানীয় ও অভিভাবক সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের রামনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ৮ থেকে ১০ জন ছাত্রী স্কুল ড্রেস না পরেই ক্লাসে আসে।

এ সময় স্কুল ড্রেস পরে না আসার অজুহাতে সহকারী শিক্ষক শাহীনুল ইসলাম শাহীন ওই শিক্ষার্থীদের বেদম প্রহার করেন। এতে রজনী খাতুন নামের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন স্কুলে এসে স্থানীয়দের সহায়তায় চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বর্তমানে সে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

চাটমোহর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু নাছের শামসুর রহমান বলেন, রোববার দুপুরে শিক্ষার্থীর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এ বিষয়ে দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে ঘটনা তদন্তে সহকারী শিক্ষা অফিসার ফারহানা খান ও শাহীনুর আলমকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আজকেই (সোমবার) তারা তদন্ত করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন। তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী প্রমাণিত হলে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা সহকারী শিক্ষা অফিসার ফারহানা ইসলামের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিকেল ৪টায় বলেন, সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তিনি তদন্তের উদ্দেশ্যে বেরিয়েছেন। তদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।

চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সজীবুর রহমান বলেন, রজনী নামের ও শিক্ষার্থীর শরীরে ব্যথা রয়েছে। ধীরে ধীরে সে স্বাভাবিক হওয়ার পথে। সংশ্লিষ্ট ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক শাহীনুল ইসলাম শাহীনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই