মেইন ম্যেনু

স্তন উন্মুক্ত করে খোলা স্থানে চলছে নারীদের পিকনিক পার্টি

বক্ষদেশ উন্মুক্ত করে নারীদের প্রতিবাদ নতুন কিছু নয়। নারীবাদী বিভিন্ন ইস্যুতে FEMEN-এর প্রতিবাদে তো প্রায়ই দেখা যায় অনাবৃত নারীদের। সম্প্রতি হংকং-এর রাস্তায় ‘স্তন কোনো হাতিয়ার নয়’ স্লোগানে বিক্ষোভে শামিল হয়েছিলেন নারীরা। তাতে অবশ্য বক্ষদেশ উন্মুক্ত করেননি নারীরা। এবার আবার একই ধরনের প্রতিবাদে শামিল নারীদের একাংশ। প্রতিবাদস্থল ব্রিসবেনের অরলেই পার্ক। যেখানে বক্ষদেশ উন্মুক্ত করে রবিবার বিকেলে অভিনব পিকনিকে অংশ নিলেন নারীরা। কর্মসূচির নাম ‘ফ্রি দা নিপল পিকনিক’।

পুরুষমানুষ যদি শরীরের ঊর্ধাংশ অনাবৃত করে প্রকাশ্যে ঘুরতে পারে, তাহলে নারীরা নয় কেন? স্তনকে কেন যৌনতার অংশ বলা হবে? মূলত এই দাবি নিয়ে ফ্রি দা নিপল পিকনিকে অংশ নিয়েছিলেন প্রায় জনা পঞ্চাশেক নারী। উদ্যোক্তা দুই বন্ধু জো বাকলে লেনক্স এবং আমান্দা হাওয়ার্থ। ফেসবুকে এই কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানান নারীদের। সেই মতো রবিবার পার্কে হাজির হন জনা পঞ্চাশেক নারী। স্তনকে যৌনতার অঙ্গ হিসেবে দেখার প্রতিবাদ জানান তাঁরা বক্ষদেশ উন্মুক্ত করে। প্রতিবাদ জানান, পুরুষশাসিত সমাজের নীতিনির্দেশিকার। দাবি করেন, পুরুষদের মতোই খোলা রাস্তায় বক্ষদেশ উন্মুক্ত করে হাঁটাচলা করতে চান তাঁরা। তবে এই প্রতিবাদ আন্দোলন যে সার্বিকভাবে গৃহীত হয়েছে এমনটা নয়। বিতর্কের ঝড় আছড়ে পড়েছে নানা মহলে। অনেকে সরব হয়েছেন সোশাল মিডিয়ায়।






মন্তব্য চালু নেই