মেইন ম্যেনু

‘স্ত্রীকে কত ভালোবাসতাম, প্রতিদিন চিঠি লিখতাম!’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তাঁর সামরিক জীবনের কথা স্মরণ করে বলেছেন, ওই সময় প্রতিদিনের কাজ শেষ করে প্রতি রাতে স্ত্রীকে চিঠি লিখতাম, ডায়েরি লিখতাম। সুখের কথা লিখতাম, দুঃখের কথা লিখতাম। স্ত্রীকে কত ভালোবাসতাম! প্রতিদিন চিঠি লিখতাম। এমন একটি দিন বাকি নেই যে, চিঠি লিখি নাই।”

মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে নিজের লেখা আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ ‘আমার কর্ম আমার জীবন’-এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এরশাদ এসব কথা বলেন।

এরশাদ বলেন, “হাজার হাজার চিঠি লিখেছি। সেই চিঠিগুলো আমার কাছে রয়েছে। কিছু হারিয়ে গেছে। আমি এখনো পড়ি। মুগ্ধ হই। এমন ভাষা কী করে লিখেছি। মানুষকে না ভালোবাসলে এত সুন্দর করে লেখা যায় না। মানুষকে ভালোবাসি বলেই ভাষাকে ভালোবাসতে শিখেছিলাম।”

এরশাদ বলেন, “আমার এই বইটির প্রতিটি কথা সত্য। কীভাবে আমি স্বৈরাচার হলাম। আমার মতো আরও স্বৈরাচার জন্মগ্রহণ করত, তাহলে আজকে বাংলাদেশ অনেক উন্নত থাকতে পারত। আমি যে কাজগুলো করেছিলাম, এটা কি স্বৈরাচাররে কাজ।”

নিজের লেখা ২০টি বই প্রকাশ হয়েছে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, “আমি কবিতা লিখি। সেটা অন্যায় পাপ! আমি সৈনিক কবিতা লিখব…কত সমালোচনা শুনেছি। কবিতা কী আমাদের ভালো লাগে না। প্রকৃতিকে ভালোবেসে, কোনো মেয়েকে ভালোবেসে, নদীকে ভালোবেসে, গাছকে ভালোবেসে আমি কী কবিতা লিখতে পারব না?”

বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন সাবেক মন্ত্রী মিজানুর রহমান শেলী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সচিব এম মোকাম্মেল হক, বইটির প্রকাশক আলমগীর সিকদার, প্রচ্ছদ পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ মফিজুল ইসলাম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই