মেইন ম্যেনু

স্ত্রীর জিব কাটার মামলায় স্বামীর আত্মসমর্পণ

সিলেটে যৌতুকের জন্য স্ত্রীর জিব কাটার মামলায় স্বামী বেলাল আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন।

সোমবার দুপুরে বেলাল আহমদ সিলেট মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন। পরে আদালতের বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে জালালাবাদ থানার ওসি আখতার হোসেন জানান, বেলালের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে। এছাড়া মামলার এজাহারভুক্ত অন্যান্য আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে।

জানা গেছে, গত ১৫ ডিসেম্বর সদর উপজেলার পশ্চিম দর্শা গ্রামে সুমা বেগমের পৈতৃক বাড়িতে যৌতুকের জন্য সুমার ওপর নির্মম নির্যাতন চালায় বেলাল ও তার দুই সহযোগী। এ সময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার জিহ্বা ও বাম পায়ের রগ কেটে দেয়। পরে গুরুতর আহত সুমাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনায় সুমার বড় ভাই হাফিজুর রহমান বাদী হয়ে বেলাল আহমদ, তার দুই ভাই, মা ও অজ্ঞাত দুইজনকে আসামি করে জালালাবাদ থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় বেলালের মা জয়বুন্নেছা, মামাতো ভাই ফয়েজ মিয়া ও ভাগনে রেদওয়ানকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।






মন্তব্য চালু নেই