মেইন ম্যেনু

স্ত্রীর পরকীয়ায় প্রবাসী খুন, আটক ২

মেহেরপুরের গাংনীতে মিলন হোসেন (৩৭) নামে এক প্রবাসীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের বাবা। এ ঘটনায় স্ত্রী মানছুরা খাতুন ও তার ভগ্নিপতি আব্দুর রশিদকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার সকাল পৌনে ৮টার দিকে গাংনী শহরের উপকণ্ঠ ঝিনেরপুল এলাকা থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার শ্যামপুর গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে কাতার প্রবাসী মিলন হোসেন মাস তিনেক আগে কাতার থেকে বাড়ি আসেন। গাংনী শহরের বন বিভাগ পাড়ায় মিলন হোসেন একটি বাড়ি নির্মাণ করেন। ওই বাড়িতে তিনি স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করেন। গতকাল রোববার সন্ধ্যার আগে শ্যামপুর গ্রাম থেকে মোটরসাইকেলযোগে গাংনীর উদ্দেশে রওনা দেয় মিলন। সারা রাত তার কোনো খোঁজ মেলেনি। সকালে ঝিনেরপুল এলাকার সড়কের পাশে একটি গর্তের মধ্য থেকে তার লাশের সন্ধান পায় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

নিহতের বাবা আব্দুল হামিদ মল্লিক জানান, বিদেশে থাকা অবস্থায় তার স্ত্রী মানছুরা খাতুনের সঙ্গে মোজাম্মেল হোসেন নামে এক যুবকের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ নিয়ে তাদের দাম্পত্য কলহ চলছিল। স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিক তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকরাম হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে রক্তমাখা একটি হাতুড়ি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের মাথায় হাতুড়ি পেটা করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী মানছুরা খাতুন ও তার ভগ্নিপতি আব্দুর রশিদকে আটক করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই