মেইন ম্যেনু

স্ত্রীর বন্ধুর সাথে অবৈধ সম্পর্ক, যৌনাঙ্গে এলোপাতাড়ি কোপ…

স্ত্রীর বন্ধুর সাথে অবৈধ সম্পর্কের জন্য কঠিন মূল্য দিতে হলো থাইল্যান্ডের পর্যটন কেন্দ্র পাতায়ার সোমচাই নামের এক ব্যক্তিকে। বক্স কাটার দিয়ে স্ত্রীর এলোপাতাড়ি কোপে মারাত্মক অবস্থা তার যৌনাঙ্গের।

পাতায়া ওয়ানের বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই স্ত্রীর বেস্টফ্রেন্ডের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িত ছিলেন ওই ব্যক্তি। হঠাৎ একদিন স্ত্রীর হাতে ধরা পড়ে যান তিনি। তবে স্ত্রী সেই বিষয় জানার পরেও কিছু বলেনি। চালিয়ে যাচ্ছিলেন নিজের ফ্রায়েড চিকেন ব্যবসা। সেই সাথে পরিকল্পনা করতে ছিলেন কি ভাবে কঠিন শাস্তি দেওয়া যায় স্বামীকে।

তার উপর কত বড় অজানা বিপদ নেমে আসছে, যার কোনও আঁচও পাননি ওই ব্যক্তি৷ একদিন স্ত্রী আবদার করে তার সাথে যৌন মিলনে লিপ্ত হওয়ার৷ এক কথায় রাজি সোমচাইও৷ কাপড় খোলার পরই অতর্কিতে বক্স কাটার দিয়ে স্বামীর যৌনাঙ্গে কোপের পর কোপ বসাতে থাকে সোমচাইয়ের স্ত্রী৷ এতে প্রায় খণ্ড হয়ে যায় তার যৌনাঙ্গ৷

ঘটনার পর রাস্তায় বেড়িয়ে এসে যন্ত্রনায় চিৎকার করতে থাকেন সোমচাই৷ সাথে সাথে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল পাতায়ার ব্যাঙ্গ লামুঙ্গ হাসপাতালে৷ চলতে থাকে আপতকালিন চিকিৎসা৷ অবশ্য তার স্ত্রীই তাকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিল।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, মাত্রাতিরিক্ত রক্তক্ষরণে বর্তমানে অবস্থা বেশ শোচনীয়৷ কবে পুরোপুরি সুস্থ হবেন ব্যক্তি বা আদৌ হবেন কিনা তা এখনই বলা যাবে না বলেই জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷

পুলিশ অপেক্ষা করছে ওই ব্যক্তির সুস্থ হওয়া পর্যন্ত। এরপরই তাকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই