মেইন ম্যেনু

স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর সংবাদ সম্মেলন

পারিবারিক কলহের জের ধরে জামাত শিবিরের লোক বলে ফাঁসানোর হুমকী দেয়ায় স্ত্রীর বিরদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্বামী মো. লোকমান হাওলাদার। সংবাদ সম্মেলনে লোকমান হাওলাদার তার বাবার বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ করেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি। এসময় তার মা কুরছি বেগম উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে লোকমান হাওলাদার বলেন, ২০০৭ সালে প্রথম বিয়ে করানো হলে ২ দিনের মাথায় তার সংসার ভেঙে যায়। এর দু’বছর পর বরগুনা জেলার তালতলী থানার ছকিনা গ্রামের মো. জলিল মৃধার বড় মেয়ে সালমার সঙ্গে তার বিয়ে হয়। স্ত্রীর সঙ্গে তার ছোট বোনের তুচ্ছ ঘটনায় দ্বন্দ্ব বাধলে সে সালমাকে গালমন্দ করে।

একারণে সালমা তার উপর ক্ষিপ্ত ও রাগান্বিত হয়ে বাসার পাশের লোকজনকে তাদের ভুল বুঝিয়ে তার উপর ক্ষেপিয়ে তোলে। পাশাপাশি জামাত শিবিরের লোক বলে ফাঁসানোর হুমকীও দেয় বলে তিনি অভিযোগ করেন। তার বাবাও স্ত্রীর সঙ্গে একত্রিত হয়ে কুৎসা রটাতে থাকেন।

লোকমান হাওলাদার বলেন, ব্যক্তিগতভাবে তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জড়িত নন। আর জামাত-শিবিরের কথাটা সম্পূর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট। এর কোনো বাস্তব প্রমাণও নেই। স্ত্রী এবং বাবা আলাউদ্দিন হাওলাদার তাকে হয়রানি ও ষড়যন্ত্রের ভিতরে ফেলার জন্য জামাত-শিবিরের নাম ব্যবহার করছে।

এ ঘটনায় নিরাপত্তা চেয়ে গত ৯ মে তালতলী থানায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই