মেইন ম্যেনু

স্ত্রী যৌন সম্পর্কে রাজি না হওয়ায় শিশুসন্তানকে জ্যান্ত কবর দিল স্বামী

যৌন সম্পর্ক করতে অস্বীকার করেছিলেন স্ত্রী। এতেই রেগে প্রতিশোধ নিতে আড়াই মাসের শিশুসন্তানকে জ্যান্ত কবর দিল স্বামী। এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটছে ভারতের ছত্তিশগঢ়ের দুর্গ দেলার বেলদাপাড়ায়। কলকাতার সংবাদমাধ্যম এবিপি আনন্দ এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৭ ডিসেম্বর গভীর রাতে এই ঘটনা ঘটে। কিন্তু প্রকাশ্যে আসে গত সোমবার। ওই দিন মৃত শিশুর মা সীমা গোণ্ড (১৯ বছর) স্থানীয় থানায় একটি এফআইআর দায়ের করেন।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ঘটনার দিন রাত দেড়টা নাগাদ মত্ত অবস্থায় সীমার স্বামী রাকেশ গোণ্ড (২০) তার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করতে চায়। তখন সন্তানকে দুধ খাওয়াচ্ছিলেন সীমা। তাই তার ওই আবদার রাখতে অস্বীকার করেন সীমা। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে সীমার কোল থেকে সন্তানকে ছিনিয়ে নিয়ে বাড়ির বাইরে চলে যায় রাকেশ। এরপর বাড়ির কাছেই একটি জায়গায় আড়াইমাসের শিশুটিকে জীবন্ত পুঁতে দেয় সে।

প্রতিবেদন থেকে আরো জানা যায়, পরে রাকেশ সীমাকে নিয়ে গিয়ে জায়গাটি দেখিয়ে দেয়। প্রায় বারো ঘন্টা পর সীমা থানায় এফআইআর দায়ের করেন। পুলিশ জানিয়েছেন, শিশুর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এদিকে অভিযুক্ত রাকেশ পালিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই