মেইন ম্যেনু

স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কার্যকরী গ্রিন কফি

এতদিন তো গ্রিন-টি খেয়েছেন, এবার একটু স্বাদ বদলানো যাক৷ কেন না এসে গিয়েছে গ্রিন-কফি৷ গ্রিন-টির মতোই যার মধ্যে আছে সবুজ প্রাণের সবক’টি গুণ৷ আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখতে যার কোনো বিকল্প নেই৷ এমনই দাবি হার্ভাড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের৷

বিশ্বের প্রথমসারির বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের দাবি, যে ব্যক্তি প্রতিদিন অন্তত তিন থেকে পাঁচ কাপ কফি খান সেই ব্যক্তির মৃত্যুর সম্ভাবনা কফি না খাওয়া ব্যক্তির থেকে কম থাকে৷ অন্তত পনেরো শতাংশ কম থাকে মৃত্যুর সম্ভাবনা৷কেন তারও ব্যাখ্যা দিয়েছেন গবেষকরা৷ তাঁদের মতে, কফি থাকে ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড বা সিজিএ বলে অত্যন্ত উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট৷ সিজিএ রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রাখে৷ রক্তচাপও স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে এই অ্যান্টি—অক্সিডেন্ট৷ হৃদরোগ এবং ক্যানসারের সম্ভাবনাও কমায় সিজিএ৷

গবেষকদের দাবি, সাধারণ বাজারচলতি যা কফি মেলে তা বেক করা হয় ২০০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় অনেকক্ষণ ধরে তাতে সিজিএ পরিমাণ কমে যায় এবং যা থাকে তাতে কার্যকারিতাও হ্রাস পায়৷ কিন্তু মার্কিন গবেষকদের দাবি, এই স্বাস্থ্যকর গ্রিন কফি বেক করা হয় অনেক কম তাপমাত্রায় তাই সিজিএ-র পরিমাণ ঠিক থাকে৷তবে এখনই হাতে পাবেন না স্বাস্থ্যকর এই কফি৷ দামে সস্তা, পুষ্টিতে ভরপুর এই কফি মিলবে আরও কিছুদিন পর৷ গম রঙা কফি পাউডারটি কিন্তু তিতকুটে নয় বরং স্বাদে খুবই নরম হালকা৷






মন্তব্য চালু নেই