মেইন ম্যেনু

স্মার্ট কার্ড নাগরিককে দুর্নীতিমুক্ত করবে: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, স্মার্ট কার্ড নাগরিককে স্বচ্ছ এবং দুর্নীতিমুক্ত করবে।

তিনি বলেন, ‘দেশ প্রযুক্তির দুনিয়ায় প্রবেশ করেছে। তরুণদের অংশগ্রহণে ডিজিটাল বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। ইআইডি ফোরাম উন্নত স্মার্ট কার্ডের পথ বের করবে বলে আশা করছি। এই স্মার্ট কার্ড নাগরিককে স্বচ্ছ এবং দুর্নীতিমুক্ত করবে।’

মঙ্গলবার সকালে হোটেল সোনারগাঁয়ের বলরুমে শুরু হয়েছে ইলেকট্রনিক আইডেন্টিটি-২০১৫ ফোরাম। ৩০টি দেশের ২৬টি আন্তর্জাতিক তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের ১৫০জন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞের উপস্থিতিতে ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং এশিয়া প্যাসিফিক স্মার্ট কার্ড অ্যাসোসিয়েশনের (এপিএসসিএ) যৌথ উদ্যেগে এ ফোরাম অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য এবং যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। বিশেষ অতিথি ছিলেন টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সভাপতি ইমরান আহমেদ।

প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ‘নাগরিকের খরচ কমানো এবং দক্ষতা-সুবিধা বৃদ্ধিতে স্মার্ট কার্ড কাজে লাগে। ২০১৬ সালের প্রথম দিকেই ৯ কোটি ৬২ লাখ নাগরিকের হাতে স্মার্ট কার্ড পৌঁছাবে বলে আশা করা যায়।’

দু’দিনব্যাপী ফোরামে ৮টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এতে ২৭টি টেকনিক্যাল অধিবেশন থাকবে। এসব সেমিনার এবং অধিবেশনে আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা এবং সুবিধা প্রদানের বিষয় বেশি প্রাধান্য পাবে।’

এর আগে নবম এবং দশম ফোরাম অনুষ্ঠিত হয় যথাক্রমে হংকং ও কম্বোডিয়ায়।






মন্তব্য চালু নেই