মেইন ম্যেনু

স্যামসাং নিয়ে এলো সম্পূর্ণ নতুন গ্যালাক্সি জে ৭ ও জে ৫

মেটাল ফ্রেমের চমৎকার ডিজাইনের সাথে ডিভাইসগুলোর এস বাইক মোড এবং আল্ট্রা ডাটা সেভিং (ইউডিএস) মোড গ্রাহকদের মোবাইল ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে আরও সমৃদ্ধ করবে

স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশ গ্যালাক্সি জে সিরিজের দুটি নতুন সংস্করণের হ্যান্ডসেট গ্যালাক্সি জে৭ ২০১৬ এডিশন এবং গ্যালাক্সি জে৫ ২০১৬ এডিশন বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে। ৪জি এলটিই সমৃদ্ধ এই ডিভাইসটির কর্মক্ষমতা বাড়াতে এতে রয়েছে ৩,৩০০ এমএএইচ (জে৭ ২০১৬ এডিশন) এবং ৩,১০০ এমএএইচ (জে৫ ২০১৬ এডিশন) ব্যাটারি।

গ্রাহকদের সম্পূর্ন নতুন এক অভিনব স্মার্টফোনের অভিজ্ঞতা দিতে এই ফোনগুলোতে রয়েছে এক্সেপশনাল পারফরমেন্স, আকর্ষণীয় ক্যামেরা এবং চমৎকার ডিসপ্লে। এই স্মার্টফোনগুলো বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

গ্যালাক্সি জে৭ ২০১৬ এডিশনে ৫.৫ ইঞ্চি এবং গ্যালাক্সি জে৫ ২০১৬ এডিশনে রয়েছে ৫.২ ইঞ্চির এইচডি সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। এতে আরো আছে এফ ১.৯ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ একটি ১৩ মেগাপিক্সেল অসাধারণ রিয়ার ক্যামেরা, যা দিয়ে যে কোন পরিবেশের আলোয় চমৎকার সব ছবি তোলা যাবে। সহজেই চমৎকার সব ছবি তুলতে ফোনটির সামনে ও পিছনের ক্যামেরায় থাকছে এলইডি ফ্য¬াশ, ম্যানুয়াল অ্যাপারচার সেটিংস এবং অ্যাডভান্সড ফটো সেটিংস। এই ফোনটিতে ২ জিবি র‌্যামসহ আরো আছে যথাক্রমে ৬৪-বিটের অক্টাকোর (১.৬ গিগাহার্টজ) এবং কোয়াডকোর প্রসেসর (১.২ গিগাহার্টজ) যা দ্রুত কার্যসম্পাদনে সাহায্য করবে।

এছাড়াও, হ্যান্ডসেটগুলোর এস বাইক মোড এবং ইউডিএস মোড গ্রাহকদের নিরাপত্তা ও সুবিধা নিশ্চিত করবে।

স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল হাসান মেহেদী বলেন, “স্যামসাং নতুন গ্রাহকের অভিজ্ঞতা এবং উন্নত প্রযুক্তির সমন্বয়ে লাইফস্টাইল সলিউশন তৈরিতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ”। তিনি আরও বলেন, “গ্রাহকদের অ্যাডভান্সড প্রযুক্তির এস বাইক মোড এবং ইউডিএস মোড-এর অভিজ্ঞতা দিতে আমরা এই নতুন গ্যালাক্সি জে৭ ২০১৬ এডিশন এবং গ্যালাক্সি জে৫ ২০১৬ এডিশন নিয়ে এসেছি। বাংলাদেশে মোবাইল খাতে অগ্রগামী হিসেবে আমরা সেরা মানের ফিচারস এবং ৪জি এলটিই সমৃদ্ধ ডিভাইসগুলো আনতে পেরে আনন্দিত”।

নিঁখুত দৃশ্যের অভিজ্ঞতা

গ্রাহকদের চমৎকার অভিজ্ঞতা দিতে গ্যালাক্সি জে৭ ২০১৬ এডিশন এবং গ্যালাক্সি জে৫ ২০১৬ এডিশনে এ আছে যথাক্রমে ৫.৫ এ ৫.২ ইঞ্চির এইচডি সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। এইচডি রেজুলেশনে সমৃদ্ধ এই ডিসপ্লে এবং সাউন্ড এলাইভ টেকনোলজি গ্রাহককে সার্বিক বিনোদনের অভিজ্ঞতা দিবে।

আল্ট্রা-ডাটা সেভিং মোড:

এই হ্যান্ডসেটে রয়েছে আল্ট্রা-ডাটা সেভিং মোড, যা ব্যবহারকারীকে একই সঙ্গে চালু ও বন্ধ থাকা অ্যাপের থেকে মোবাইল ডাটার ব্যবহার এবং ডাটা অপটিমাইজেশনের মাধ্যমে ডাটা সংরক্ষণের আলাদা তথ্য দেবে। আল্ট্রা-ডাটা সেভিং মোড ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ডাটা সাশ্রয় করতে পারে। এর স্মার্ট ম্যানেজার কত শতাংশ ডাটা খরচ এবং কত শতাংশ অবশিষ্ট রয়েছে তা ব্যবহারকারীকে জানায়।

এস বাইক মোড:

এই স্মার্টফোনটিতে রয়েছে এস বাইক মোড। বাইক চালানো অবস্থায় লেটেস্ট এই মোডটি ইনকামিং কলগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করবে। কুইক অ্যাক্টিভেশন, আর্জেন্ট কল এলার্ট সিস্টেম এবং মোশন লকের মাধ্যমে এই ইউনিক মোডটি কাজ করে। গ্রাহকরা জে৭ এবং জে৫ ২০১৬ এডিশন হ্যান্ডসেটগুলোর নোটিফিকেশন প্যানেলে প্রবেশ করে এস বাইক মোডটি অ্যাক্টিভেট করতে পারবেন। স্যামসাং গ্যালাক্সি জে৭ এবং জে৫ ২০১৬ এডিশন হ্যান্ডসেটগুলোতে রয়েছে এনএফসি কানেকটিভিটি, যার সাহায্যে ব্যবহারকারীরা এনএফসি ট্যাগটি ট্যাপ করেও এই মোডটি চালু করতে পারবেন। এই মোডের মাধ্যমে ব্যবহারকারী কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নম্বরকে চিহ্নিত করে রাখতে পারবেন, এতে তারা গাড়ী চালানো অবস্থাতেও নোটিফিকেশন পাবেন। যদি কলটি জরুরি হয়, তাহলে কলার ১ প্রেস করলে ব্যবহারকারীর কাছে কলটি পৌঁছে যাবে।
নিরাপদ যোগাযোগ উৎসাহিত করার জন্য এস বাইক মোডের মোশন লক ফিচার এটি নিশ্চিত করে যে, ব্যবহারকারী যদি কোনো জরুরি ইনকামিং কল রিসিভ করতে চান তবে তাকে বাইক সম্পূর্ণভাবে থামানোর পর কলটি রিসিভ করতে হবে। এস বাইক মোড চালু অবস্থায় ব্যবহারকারী কলারের নোটিফিকেশনস দেখতে পাবেন। স্মার্ট রিপ্লাই ফিচারের মাধ্যমে নির্বাচিত নম্বরগুলো অটোমেটিক এসএমএস পাবেন। এতে নির্বাচিত কলাররা ফোন করলে কতক্ষণ পর বাইক চালক রিসিভ করতে পারবেন তার সম্ভাব্য সময় জানিয়ে দেবে।

দ্রুত কার্যক্ষমতা

স্যামসাং গ্যালাক্সি জে৭ এবং গ্যালাক্সি জে৫ ২০১৬ এডিশনে রয়েছে ৩,৩০০ এমএএইচ এবং ৩,১০০ এমএএইচ শক্তিশালী ব্যাটারি। এছাড়াও হ্যান্ডসেটগুলোতে ২ জিবি র‌্যামসহ আরো আছে যথাক্রমে ১.৬ গিগাহার্টজ অক্টাকোর এবং ১.২ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রসেসর যা হ্যান্ডসেটগুলোর দ্রুত কার্যক্ষমতা নিশ্চিত করে।

এর বেশ কিছু অ্যাডভান্সড কার্যক্ষমতা রয়েছে যার ফলে ব্যবহারকারী পাবেন ল্যাগ ফ্রি অপারেশন, বাফার ফ্রি ইন্টারনেট ব্রাউজিং এবং বাধাহীন দীর্ঘক্ষণ গেমস খেলার অভিজ্ঞতা। এতে ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত মাইক্রো এসডি মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যায়।

কোয়ালিটি ক্যামেরা

এই ডিভাইসের এ্যডভান্সড ক্যামেরা ফিচার মোবাইল ফটোগ্রাফিকে নিয়ে যাবে এক নতুন মাত্রায়। পিছনের ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরার এডজাস্টেবল ফিচার এবং এফ স্টপ ভ্যালু ১.৯ যে কোন পরিবেশের আলোয় ছবি তুলতে সক্ষম এমনকি কম আলোতেও পরিস্কার ছবি তুলতে পারে। চমৎকার সব সেলফি তুলতে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরাটিতে আরো আছে এলইডি ফ্যøাশ এবং এডভান্সড ফটো সেটিংস।
মূল্য এবং প্রাপ্তিস্থ্না

কালো, সোনালী এবং সাদা রঙের স্যামসাং গ্যালাক্সি জে৭ ২০১৬ এডিশন মাত্র ২৪,৯০০ টাকা এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি জে৫ ২০১৬ এডিশন মাত্র ২১,৯০০ টাকায় বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। এই হ্যান্ডসেটগুলো কিনতে গ্রাহকরা ৩ মাসের ইএমআই সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জে সিরিজ সর্ম্পকে বিস্তারিত জানতে গ্রাহকের কল করতে পারেন ০৮০০০-৩০০৩০০(কর মুক্ত) অথবা নিকটস্থ স্যামসাং স্মার্টফোন ক্যাফেতে ভিজিট করতে পারেন।






মন্তব্য চালু নেই