মেইন ম্যেনু

হরতালে রাজধানীসহ সারাদেশে নিরাপত্তা জোরদার

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মীর কাসেম আলীর রিভিউ খারিজের হওয়ায় জামায়াতে ইসলামির ডাকা বুধবারের সকাল সন্ধ্যার হরতালে রাজধানীসহ সারাদেশে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

হরতালে নাশকতা এড়াতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পুলিশ। র‌্যাবের সব ব্যাটালিয়নও সতর্কতামূলকভাবে অবস্থান করেছে।

হরতালের সমর্থনে দলটির নেতাকর্মীরা রাজধানীসহ যেসব সম্ভাব্য স্থানে বিক্ষোভ করতে পারে সেসব স্থানে বুধবার সকাল থেকেই নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

মঙ্গলবার সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চে মীর কাসেমের রিভিউ আবেদন খারিজ করে মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রাখেন। পরে বিকেলে পাঁচ বিচারপতির স্বাক্ষরিত ২৯ পৃষ্ঠার রায় সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

রায় প্রকাশের পর সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মেহেদী হাসান ট্রাইব্যুনালে রায়ের কপি পৌঁছে দেন।

৬৩ বছর বয়সী জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ায় এখন তার সামনে কেবল রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনার সুযোগ রয়েছে। এ রায়ের প্রতিবাদে আজ বুধবার সকাল সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করে জামায়াতে ইসলামী।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, ২৪ ঘণ্টার হরতাল বিক্ষোভ কিংবা কোনো ধরনের নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ঠেকাতে রাজধানীতে সতর্কাবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া ও পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার(ডিসি) মাসুদুর রহমান বলেন, জনগণের নিরাপত্তা ও জানমালের হুমকি এমন যে কোনো ধরনের কর্মসূচি রাজধানীতে হতে দেয়া হবে না। হরতালের যারা নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড করবে তাদের কোনোভাবে ছাড় দেয়া হবে না। বিকেলে হরতালের সমর্থনে জামায়াত বিক্ষোভ কিংবা ভাংচুর বা জ্বালাও পোড়াও করলে তা শক্ত হাতে দমন করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকার চারটি প্রবেশমুখে অতিরিক্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সন্দেহভাজন যানবাহন ও ব্যক্তিদের দেহ তল্লাশি করা হবে। বঙ্গভবন, গণভবন, কূটনৈতিক এলাকা, বিচারকদের বাসভবনসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে নেওয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা।

জামায়াতের হরতাল কর্মসূচিকে ঘিরে রাজধানীসহ সারাদেশে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে এলিট ফোর্স র‌্যাব।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মিডিয়া অ্যান্ড লিগ্যাল উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান বলেন, রাজধানীতে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে র্যাবের প্রক্যেকটি ব্যাটালিয়নকে সতর্কাবস্থানে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নিয়মিত টহলের পাশাপাশি নৈশ টহল বাড়ানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই