মেইন ম্যেনু

হরতাল প্রতিরোধে শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চ

জামায়াতের হরতাল প্রতিহত করতে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়েছেন গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা। এ সময় একটি মিছিলও বের করেন তারা।

সেখানে দেশাত্মবোধক গান, কবিতা আবৃত্তি ও হরতালবিরোধী স্লোগানে মুখর করে রেখেছেন মঞ্চের নেতাকর্মীরা।

দুই শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী আলী আহসান মুজাহিদ ও সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজের প্রতিবাদে দেশব্যাপী জামায়াতের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে। তবে এখন পর্যন্ত এর কোনো প্রভাব দেখা যায়নি রাজধানীসহ দেশের বড়বড় শহরগুলোতে।

অন্যান্য দিনের মতোই ভোর থেকে রাজধানীতে যান চলাচল স্বাভাবিক দেখা গেছে। বিভিন্ন চেক পোস্টে পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে আছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। এমনকি কর্মসূচির সমর্থনে কোনো মিছিল কিংবা পিকেটিং করতেও দেখা যায়নি জামায়াত-শিবির কর্মীদের।

হরতালকে কেন্দ্র করে দেষজুড়ে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। যেকোনো ধরনের নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড প্রতিহত করতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশের সঙ্গে কাজ করছে র‌্যাব ও বিজিবি।

এদিকে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী হরতালের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে শাহবাগে অবস্থান নেওয়া শুরু করে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা।

হরতালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও এর উল্টো পাশে অবস্থিত বারডেম হাসপাতালে অন্য দিনের মতোই চলছে চিকিৎসা কার্যক্রম।

শাহবাগ মোড় থেকে নিউমার্কেট, ফার্মগেট, মতিঝিল-গুলিস্থান প্রতিটি রুটেই প্রতিদিনের মতোই গণপরিবহন চলাচল করতে দেখা যাচ্ছে। রয়েছে পর্যাপ্ত সংখ্যক রিকশা ও সিএনজি চালিত অটোরিকশা।

শাহবাগে অবস্থান নেওয়ার বিষয়ে গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার বাংলামেইলকে বলেন, ‘জামায়াতের হরতালের প্রতিবাদে আমরা রাস্তায় নেমেছি। আমরা জামায়াতের হরতাল প্রতিহত করব। গণজাগরণ মঞ্চের অবস্থান চলছে, চলবে।’

রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এই শাহবাগ মোড়টিতে মোতায়েন রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য।






মন্তব্য চালু নেই