মেইন ম্যেনু

হাজিদের সম্মানে মক্কায় কমেছে হোটেল ভাড়া

হাজিদের সম্মানে সৌদি আরবে এ বছর বাড়ি ও হোটেল ভাড়া কমানো হয়েছে। স্বল্প খরচে হাজিদের আবাসনের লক্ষ্যে গত বছরের চেয়ে ৬০ শতাংশ ভাড়া কমানো হয়েছে বলে মক্কার হোটেল মালিক ও বিনিয়োগকারীরা জানিয়েছেন।

রোববার সৌদি আরবের জাতীয় দৈনিক আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হোটেল ও সুসজ্জিত অ্যাপার্টমেন্টের পরিমাণ বৃদ্ধি ও অন্যান্য বছরের চেয়ে হজযাত্রীদের পরিমাণ কমে যাওয়ায় হাজিদের জন্য আবাসন ভাড়া ১০ হাজার সৌদি রিয়াল থেকে দুই হাজার সৌদি রিয়াল পর্যন্ত কমেছে। কিছু ক্ষেত্রে ৬০ শতাংশ ভাড়া কমেছে।

মক্কায় হোটেল ও অ্যাপার্টমেন্ট বিনিয়োগকারীরা বলছেন, বেশি সংখ্যক হজযাত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য হোটেল মালিকরা ভাড়া কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ফলে চাহিদার চেয়ে বেশি আবাসনের সুযোগ থাকায় সম্ভাব্য ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া যাবে।

ওয়াফি আল-কাহতানি নামের এক বিনিয়োগকারী বলেন, বিভিন্ন হোটেলের মালিকরা হজযাত্রীদের জন্য ভাড়া ৬০ শতাংশ কমিয়েছেন। আগে যে ইউনিটের ভাড়া ৩ হাজার সৌদি রিয়াল ছিল; তা কমিয়ে সাড়ে সাতশ সৌদি রিয়াল করা হয়েছে।

আল-কাহতানি বলেন, ১৫ লাখ হজযাত্রীর আবাসনের ব্যবস্থা করতে এ বছর মক্কায় ৩০ লাখ শয্যা রয়েছে। শয্যার পরিমাণ প্রত্যেক বছর বাড়লেও; বাড়েনি হাজির পরিমাণ। এর প্রভাব পড়েছে হোটেল ও অ্যাপার্টমেন্টের ভাড়ায়।

ওই বিনিয়োগকারী আরো বলেন, তিন বছর আগেও যেখানে প্রত্যেক শয্যার ভাড়া ৩ হাজার সৌদি রিয়াল ছিল; সেখানে বর্তমানে তা কমে ছয়শ রিয়ালে দাঁড়িয়েছে। ৭৫ শতাংশ ভাড়া কমেছে। ফলে কিছু কিছু হোটেল বন্ধও হয়ে গেছে; বিশেষ করে আল-আজিজিয়াহ জেলায় বেশি হোটেল বন্ধ রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই