মেইন ম্যেনু

হাজীগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতে শিক্ষকসহ জামায়াতকর্মীর কারাদণ্ড

হাজীগঞ্জে মুজাহিদ ও সাকা চৌধুরীর গায়েবানা জানাজার ও বিনা অনুমোতিতে সমাবেশ করায় দায়ে শিক্ষকসহ দুই জামায়াতকর্মীকে ছয় মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল রবিবার হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট শেখ মুর্শিদুল ইসলাম ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এ রায় দেন।
সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- হাজীগঞ্জ আল-কাউছার ক্যাডেট মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক গোলাম ফারুক ইয়াহিয়া (৪৩) ও বলিয়া গ্রামের জামায়াতকর্মী জাকির হোসেন (৬৬)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হাজীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মনির হোসেন জানান, রবিবার ভোর ৬টায় পুলিশি টহলরত অবস্থায় হাজীগঞ্জ পৌরসভার পশ্চিম মকিমাবাদে আল-কাউসার স্কুল ও ক্যাডেট মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে গায়েবানা জানাজার নামাজ আদায় করছিলেন জামায়াতকর্মীরা। এ সময় দু’জনকে আটক করা হয়। গায়েবানা নামাজের জানাজায় অংশ নেওয়া আরও কয়েকজন জামায়াতকর্মী পালিয়ে যান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আল-কাউছার ক্যাডেট মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক গোলাম ফারুক ইয়াহিয়া।

এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুর্শিদুল ইসলাম বলেন, বিনা অনুমতিতে গায়েবানা জানাজা ও সমাবেশ করার অপরাধে এ দণ্ড দেওয়া হয়েছে।

অপর দিকে শনিবার মাদক সেবনের দায়ে ১জনকে ছয় মাসের বিনাশ্রম সাজা প্রদান করেছেন হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট শেখ মুর্শিদুল ইসলাম। সাজাপ্রাপ্ত আসামি হলেন, উপজেলা টোরাগড় গ্রামের খাঁন বাড়ির ফজর আলীর ছেলে মহসিন হোসেন (২১)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশের এএসআই ফখরুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার রাতে স্থানীয় টোরাগড় গ্রাম থেকে মাদক সেবন অবস্থায় ২পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। পরে শনিবার ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ছয় মাসের সাজা প্রদান করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই