মেইন ম্যেনু

হাতির মতো শিশু! (ভিডিও)

হাতির বাচ্চার মতো দেখতে শিশু সন্তানের জন্ম দিয়েছে নরওয়ের এক দম্পতি। আর এই খবর পাওয়া মাত্রই তাদের বাড়ির সামনে ভিড় জমিয়েছে সেখানে বসবাসরত হিন্দু সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষেরা। হিন্দু দেবতা শ্রী গণেশের সঙ্গে শিশুটির মিল রয়েছে বলে হাতে ফুলের ঝুড়ি নিয়ে তাকে দেখতে তাদের বাড়ির সামনে উৎসুক ধর্মালম্বীদের ভিড়। তবে এই ঘটনায় প্রচন্ডভাবে বিরক্ত এবং হতাশ আলেকজান্ডার এবং লোলা অ্যান্ডারসন নামে ওই দম্পতি। সেলিব্রেটি সিটি নামের একটি ওয়েব সাইট থেকে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায়।

বাচ্চাটি অর্ধেক মানুষ এবং অর্ধেক হাতির মতো দেখতে। আলেকজান্ডার এবং লোলা এ্যান্ডারসন দম্পতি প্রথমে চেষ্টা করেছিলো পুরো ব্যাপারটিকে গোপন রাখার জন্য, কিন্তু অতি দ্রুতই এই বাচ্চার ছবি তাদের আত্নীয় স্বজনদের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে যায়। অ্যান্ডারসন দম্পতিকে ভারতে সেলিব্রেটি হিসেবে ভ্রমনের আমন্ত্রন দেয়া হয়। কিন্তু এইরকম সন্তান জন্ম দিয়ে এই দম্পতি মোটেও খুশি নন।

লোলা অ্যান্ডারসন বিরক্ত হয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাইরের লোক ঘোরাঘুরি যা আমার একদম ভালো লাগছে না। যদি তারা আমাদেরকে শান্তিতে থাকতে না দেয় তাহলে আমরা তাদেরকে বাইরে বের হয়ে ছুঁড়ি মারবো’। তিনি আরো বলেন, ‘আমার বাচ্চাটাকে দেখতে কিছুটা হাতির মতো আর কিছুটা আদার মতো লাগছে। যদি দর্শনার্থীরা আর একটি ফুলের ঝুড়ি আমার হাতে তুলে দেয় তাহলে তাদের ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে। আমি তাদের আচরণে বিরক্ত’। বাচ্চার নাম কি রেখেছেন-এই প্রশ্নের জবাবে লোলা এ্যান্ডারসন বলেন, যেহেতু সে দেখতে হাতির মতো তাই তার নাম এখনো রাখা হয়নি’।

এদিকে শিশুটির বাবা বলেন, ‘আমরা বাচ্চাটির নাম কখনোই রাখবো না। সত্যি কথা বলতে, এই অদ্ভুত আকৃতির বাচ্চাটি নিয়ে আমরা সত্যি বিরক্ত। আমরা একে আমাদের আন্ডারগ্রাউন্ডে রেখে দিয়েছি। আর আপাতত হাতিদা নামে ডাকছি। যদি ভারত সরকার এই বাচ্চাটিকে কিনতে আগ্রহী হয় তাহলে আমরা তাকে বিক্রি করে দেবো। তাহলে হয়তো ভারত সরকার বাচ্চাটিকে তাজমহলে থাকার ব্যবস্থা করে দেবে’।

ভিডিও






মন্তব্য চালু নেই