মেইন ম্যেনু

হাতিয়ায় পরাজিত প্রার্থীর সমর্থক চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী : নোয়াখালীর হাতিয়ার চরকিং ইউনিয়ন নির্বাচনে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও গুলির ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত আবু তাহের (৬৫) নামের এক সমর্থক চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। বুধবার সকালে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহত আবু তাহের উপজেলার চরকিং ইউনিয়নের মৃধা গ্রামের মৃত রুহুল আমিনের ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, চরকিং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে ১৭ এপ্রিল দুপুরে বিজয়ী প্রার্থীর মহিউদ্দিনের ৬০-৬৫ জন সমর্থক স্থানীয় মৃধা গ্রামে বিদ্রোহী প্রার্থী মহিনের আনারস প্রতীকের সমর্থক ওমর ফারুকদের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা দুইটি বসতঘর ভাঙচুর করে, একটি রান্নাঘরে অগ্নিসংযোগ করে। এ সময় কুপিয়ে ও এলোপাতাড়ি গুলি করে ওই বাড়ির ১০ জনকে আহত করে। এতে ৬ জন গুলিবিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ গুরুতর আহত আবু তাহের (৬৫), রাশেল উদ্দিন (৩০), ওমর ফারুক (৩৫) ও শামীম উদ্দিনকে (১৬) প্রথমে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবু তাহের বুধবার সকালে মারা যান। হাতিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাকির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নির্বাচনী পূর্ব বিরোধের জের ধরে নৌকার সমর্থকেরা আনারসের সমর্থকদের বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর চালায়। এতে আবু তাহের সহ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবু তাহের মারা যান। ঢাকা থেকে তার মৃতদেহ আনা হচ্ছে। পরবর্তীতে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।






মন্তব্য চালু নেই