মেইন ম্যেনু

হাতের কব্জিতে গোলাকার ডিসপ্লে [ভিডিও]

গত বছর ধরে স্মার্টফোনের মত ইলেকট্রোনিক ডিভাইসে বাঁকানো ডিসপ্লের কদর বাড়তে শুরু করে। স্পেনের বার্সেলোনাতে অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে (এমডব্লিউসি) প্রোটোটাইপের এমন একটি বাঁকানো ডিসপ্লে প্রদর্শন করে ফ্লেক্সেনেবল নামে এক ইংলিশ প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান।

এই প্রযুক্তির নাম ফ্লেক্সেনেবল ডিসপ্লে। এখন পর্যন্ত এটি কার্যকর কোন ডিভাইস নয়। এটি কার্যত একটি স্ক্রিন যা এখনও পরীক্ষামূলক ভাবে পরিচালিত হচ্ছে এবং ফ্লেক্সেনেবল কোন প্রতিষ্ঠিত প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি দাবি করছে এই প্রযুক্তিটি এখনই ব্যবহারের উপযোগী। কোন একটি প্রতিষ্ঠানের সাথে যৌথ প্রযোজনায় এর বাস্তব রুপ প্রদান করা সময়ের ব্যাপার মাত্র।

কতদিন লাগতে পারে পুরোপুরি কার্যকর বাহুতে পরিধানযোগ্য এই ডিভাইসটি প্রযুক্তি বাজারে পেতে? এমন প্রশ্নের জবাবে ফ্লেক্সেনেবলের পল চেইন দাবি করেন, ১৮ মাসের মধ্যেই বাণিজ্যিকভাবে এই ডিভাইসটি উৎপাদন করা সম্ভব।

প্রোটোটাইপ প্লাস্টিক ট্রানজিসটর ব্যবহার করেছে ডিভাইসে নমনীয়তা দিতে। প্রতিষ্ঠানটি যে ডিসপ্লেটি তৈরি করেছেন সেটি হল অর্গ্যানিক লিকুইড ক্রিস্টাল ডিসপ্লে (ওএলসিডি)। ফ্লেক্সেনেবল দাবি করছে তাদের এই ডিসপ্লেতে এলসিডির মতোই রেজুলেশন পাওয়া যাবে। সাথে থাকবে নমনীয়তা। এই ট্রানজিসটর যেকোনো কিছুর সাথে মোড়ানো যাবে এবং এটি বাইরের ডিসপ্লে টেকনোলজিতে ব্যবহার করা যাবে।

এমডব্লিউসিতে দেখানো এই প্রোটোটাইপ ডিসপ্লেটি ধাতব ফ্রেমে তৈরি। অন্যান্য ভাঁজ করা ডিসপ্লের মতো ওএলসিডি ডিসপ্লেটি সামান্য ভাঁজ করা যায়।

ডিসপ্লেটি এমন নয় যে আপনি সোজা বা ভাঁজ উভয় অবস্থাতেই ব্যবহার করতে পারবেন। পুরোপুরি ভাঁজ করে আবার সোজা করে ব্যবহার করার জন্য এখনও অপেক্ষা করতে হবে।

ভিডওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুণ…






মন্তব্য চালু নেই