মেইন ম্যেনু

হাত-পা কেটে বিমার টাকা দাবি

এক নারী তার হাত-পা কেটে বিমার টাকা দাবি করেন।

ভিয়েতনামের ওই নারী তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ স্বীকার করেছেন। উল্লেখযোগ্য ঘটনা হলো, এ ধরনের অপরাধের বিচারে দেশটিতে সুনির্দিষ্ট কোনো আইন নেই।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভিয়েতনামের পিপল’স পুলিশ নিউজপেপারস এর এক খবরে বলা হয়েছে, লি থিন এন নামের ৩০ বছর বয়সি ওই নারী মে মাসে দাবি করেন, তিনি ট্রেন দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন। তার অঙ্গহানী হয়েছে। তার এক পা এবং হাতের একাংশ কাটা পড়েছে।

যে ব্যক্তি লি থিন এনের হাত-পা কেটে দেন, তিনিই অ্যাম্বুলেন্স ডেকে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এ নাটকের ফলাফল ব্যর্থ হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন, তাকে অঙ্গহানী করতে সাহায্য করায় এক বন্ধুকে তিনি প্রায় ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা (২ হাজার ২০০ ডলার) দিয়েছেন।

অঙ্গহানী করার উদ্দেশ্য ছিল বিমা কোম্পানির কাছে ১ লাখ ৫০ হাজার ডলার দাবি করে আদায় করা। কিন্তু তার সে আশায় ছাই পড়েছে। প্রকৃত ঘটনা জানাজানি হয়ে গেছে। এখন উল্টো বিপাকে পড়েছেন তিনি।

খবরে বিমা কোম্পানিটির নাম উল্লেখ করা হয়নি। লি থিন এনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে কোম্পানিটি। তবে ভিয়েতনামের দণ্ডবিধিতে এ ধরনের মামলার বিচারের বিধান নেই।

পুলিশ জানিয়েছে, এ মামলা পরিচালনার জন্য দণ্ডবিধিতে নতুন বিধি সংযোজন করার প্রয়োজন হয়ে দাঁড়িয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই