মেইন ম্যেনু

হারের পর যা বললেন ইমরুল

মূল লড়াইয়ে নামার আগে বাংলাদেশের আবহাওয়ার সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নিতে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলল দক্ষিণ আফ্রিকা। তাদের প্রতিপক্ষ হিসেবে ছিল বিসিবি একাদশ। দুর্বল প্রতিপক্ষ। তাই জয় পেতে তেমন কষ্ট হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকা দলের।

বিসিবি একাদশকে ৯৯ রানে অলআউট করার পর এক প্রকার বিনা উইকেটে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশের হয়ে ব্যাট হাতে অধিনায়ক ইমরুল কায়েস সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন।

ম্যাচ শেষে তাই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ইমরুল কায়েস। তিনি বলেন, ‘প্রতিপক্ষ শক্তিশালী। তার ওপর উইকেটে বল বেশ উঁচু-নিচু হচ্ছিল। এই দলে আমরা কয়েকজন জাতীয় দলের খেলোয়াড় ছিলাম। আশা করছি, এই ম্যাচ পরবর্তী সময়ে আমাদের সাহায্য করবে।’

উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রনি তালুকদার ও আনামুল হক বিজয় বোল্ড হয়ে যান। তাদের আউটের বিষয়ে বিসিবি একাদশের অধিনায়ক বলেন, ‘যে দুটি বলে তারা দুজন বোল্ড হয়েছে সে দুটি বলই বেশ ভালো ছিল।’

অনেকদিন পর সোহাগ গাজী মাঠে ফিরেছেন। তার বিষয়ে ইমরুল বলেন, ‘সে অনেক দিন পর মাঠে ফিরেছে। আজ বল করেছে। বেশ ভালোই দেখলাম। ব্যাট হাতেও ভালো শুরু করেছিল। তবে ফিরে আসার ম্যাচে কঠিন প্রতিপক্ষ হলে কিছু করার থাকে না।’






মন্তব্য চালু নেই