মেইন ম্যেনু

হার্টবার্নজনিত এসিডিটি কমানোর ওষুধ দীর্ঘদিন সেবন ক্ষতিকর

এসিড রিফ্লাক্স মেডিকেশন বা এসিডিটি কমানোর প্রটন পাম্প ইনহিবিটর জাতীয় ওষুধ দীর্ঘদিন সেবন করলে মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে। বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, সাধারণ মানুষ যতটা ক্ষতির কথা ভাবে তার চেয়েও বেশি ক্ষতি হয় এসিডিটি কমানোর ওষুধে। আর এ তথ্যটি দিয়েছেন হারভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের গবেষক ড. সোসহানা জে হারজিগ।

এ ব্যাপারে ড. হারজিগ-এর অভিমত হচ্ছে, বিগত ৫ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে এফডিএ বা ফুড এন্ড ড্রাগ এ্যাডমিনিস্ট্রেশন এসিডিটি কমানোর ওষুধের দীর্ঘ মেয়াদী ব্যবহার সম্পর্কে সতর্ক বার্তা দিয়ে আসছে। এফডিএর মতে, এক বছর বা আরও বেশি সময় ধরে এধরনের ওষুধ সেবন করলে হিপ, রিস্ট ও স্পাইন ফ্র্যাকচারের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি। শুধু তাই নয়, এসিডিটি কমানোর ওষুধ সেবন থেকে রক্তের ম্যাগনেশিয়ামের মাত্রা হ্রাস পায়। যার ফলে হার্টের সমস্যা (অ্যারিদমিয়া) ও পেশীর স্পাজম হতে পারে।

এছাড়া দীর্ঘ মেয়াদী এসিডিটি কমানোর প্রটন পাম্প ইনহিবিটর জাতীয় ওষুধ সেবনে ডায়রিয়াসহ অন্যান্য পেটের সমস্যাও হতে পারে। এ ধরনের ওষুধের অন্যান্য সমস্যাও রয়েছে। তাই হার্ট বার্ন বা বুক জ্বালা পোড়ার রোগীদের দীর্ঘ মেয়াদী এসিডিটি কমানোর ওষুধ সেবন বাঞ্ছনীয় নয়। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট চিকিত্সকের পরামর্শ নেয়া ভালো।






মন্তব্য চালু নেই