মেইন ম্যেনু

হাসপাতালে ঢুকে ফিলিস্তিনীকে হত্যা

ফিলিস্তিনের একটি হাসপাতালে ঢুকে গুলি করে এক যুবককে হত্যা করেছে ইসরায়েলী সেনারা। হেবরনের আল-আহলি হাসপাতালে বৃহস্পতিবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। খবর আলজাজিরার।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ইসরায়েলী সেনাবাহিনীর ২১ সদস্যের একটি বিশেষ দল (মুসতারাবিন) হাসপাতালটিতে ঢুকে ২৭ বছর বয়সী আব্দুল্লাহ আল-সালালদেহকে হত্যা করে। আব্দুল্লাহর শরীরে পাঁচ রাউন্ড গুলি করা হয় বলে জানানো হয়েছে।

ইসরায়েলী সেনাদের হাতে গুলিবিদ্ধ আজ্জাম আল-সালালদেহকে আল-আহলি হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। ইসরায়েলি সেনারা তাকে গ্রেফতার করতে গেলে তার চাচাতো ভাই আব্দুল্লাহ বাধা দেয়। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে আব্দুল্লাহকে গুলি করে সেনারা।

Hospital-attack

আব্দুল্লাহকে হত্যার পর আজ্জামকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় ইসরায়েলী সেনারা। আগে থেকে এক সেনা গর্ভবতী নারীর ছদ্মবেশে হাসপাতালটিতে অবস্থান করছিলেন।

হাসপাতালটির চিকিৎসক শাওয়ার জানান, ইসরায়েলী সেনারা সোজা অস্ত্রোপচার ওয়ার্ডে প্রবেশ করে। আব্দুল্লাহর মাথা ও দেহে বেশ কয়েকটি গুলি লেগেছে।

ইসরায়েলী সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দেওয়া হয়নি। তবে বার্তা সংস্থা এএফপির কাছে তারা অভিযানের বিষয়টি স্বীকার করেছে।

হাসপাতালের সিসিটিভ ফুটেজে ইসরায়েলী বাহিনীর অভিযানের ঘটনা দেখা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই