মেইন ম্যেনু

হাসিনাকেও কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে : খালেদা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘ক্ষমতায় আসার পর স্বঘোষিত প্রধানমন্ত্রী (শেখ হাসিনা) ১৫টি মামলা থেকে মুক্ত হয়েছেন। অথচ আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে নিয়ে টানাহেচড়া চলছে। আমার ‍বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে দায়ের করা নাইকো মামলা চলতে হলে হাসিনাকেও (প্রধানমন্ত্রী) বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (০৯ জুন) সুপ্রিম কোর্ট জাতীয়তাবাদী আইনজীবী সমিতির ইফতার মাফফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন বিএনপি চেয়ারপারসন। শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে এ ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

বেগম জিয়া বলেন, ‘আমরা আগে বাকশালীতে পড়েছিলাম, আবার সেদিকে ধাবিত হচ্ছি। জনগণ বিশ্বাস করেনা বিচার ও বিচার বিভাগ স্বাধীন। দেশে এখন দুই ধরনের আইন আছে। একটি আইনে বিরোধী দলের বিচার দ্রুত করা হচ্ছে, অন্য আইনে সরকারি দলের লোকদের কোনো বিচার করা হচ্ছে না।’

চীফ জাস্টিস, জজ এবং আইনজীবীদের উদ্দেশ্য বিএনপিপ্রধান বলেন, ‘বিচার যদি করতে হয় তাহলে হাসিনারও বিচার করতে হবে। বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের মামলার চেক কে কোথায় নিয়েছে, কী করেছে, তা আমাদের রেকর্ড আছে। সকল আইনজীবী বিচারকদের কাছে আমরা ন্যায়বিচার চাই। এর বেশি কিছু আমাদের চাওয়ার নেই।’

এখনো ৭ খুনের বিচার হচ্ছে না উল্লেখ করে খালেদা বলেন, ‘৭ খুনের বিচার হলে হাসিনার নাম আসবে তাই বিচার বিঘ্নিত হচ্ছে। আমাদের বিচার দ্রুত করা হচ্ছে, কিন্তু তাদের বিচার হচ্ছে না। এক দেশে দুই আইন চলতে পারে না।’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বিচারপতি টিএইচ খানের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন-বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ২০ দলীয় জোট শরিক ন্যাশনাল পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই