মেইন ম্যেনু

‘হায় বেগম জিয়া, আর কত মিথ্যাচার করবেন’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছেন, ‘আমি বেগম জিয়ার কাছে প্রশ্ন রাখতে চাই, এই আধিপত্যবাদী শক্তির নাম কি? আর আপনার কথিত এ দেশের চিহ্নিত মহলেরই বা পরিচয় কি? হায় বেগম জিয়া, হায় বিএনপি! আর কত মিথ্যাচার করবেন। ছি ছি।’

দশম সংসদের দ্বিতীয় বাজেট অধিবেশনে মঙ্গলবার বিকেলে কার্যপ্রণালী বিধির ৩০০ বিধি অনুযায়ী জাতীয় সংসদে দেওয়া এক বিবৃতিতে বিএনপি ও বিএনপিনেত্রী খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সব কথা বলেন।

এ সময় ২০১৩ সালের ১৫ ডিসেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিজয় দিবসের বাণী তুলে ধরে আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, গত ১৩ই জুন ভারতের নয়াদিল্লির সানডে গার্ডিয়ান পত্রিকায় বিএনপি-জামায়াত জোট নেত্রী খালেদা জিয়ার একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছে। এই সাক্ষাৎকারে তিনি আমার নামে অভিযোগ করেছেন যে, আমি নাকি ভারতের মান্যবর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের সময় তাঁর সঙ্গে বেগম জিয়ার সঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছিলাম। আমি বেগম জিয়ার এই দায়িত্ব জ্ঞানহীন অভিযোগের নিন্দা জানাই। তিনি সবসময়ই নাৎসী প্রচার প্রধান গোয়েবলস-এর মিথ্যাচার কৌশলের একনিষ্ঠ অনুসারী। তিনি মনে করেন যে, মিথ্যাকে বার বার বল্লেই সত্যি হয়ে যায়। কিন্তু প্রতিবারই তিনি ও তাঁর দল ধরা খেয়ে যান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গত ৫ই জুন আমার সংবাদ ব্রিফিং-এ বিএনপিপন্থী একজন সাংবাদিক প্রশ্ন করেছিলেন যে, মোদির সঙ্গে বেগম জিয়ার সাক্ষাৎ হবে কি না। উত্তরে আমি বলেছিলাম, এই প্রশ্নের আলোচনার এখানে কোন সুযোগ আছে বলে আমার মনে হয় না। আমার বক্তব্যকে সম্পূর্ণ বিকৃত করে পরদিন দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। আমি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ৬ই জুন একটি অনুষ্ঠানের ফাঁকে ইত্তেফাকের কূটনৈতিক সংবাদদাতাকে এটা জানাই। তিনি বলেন, এটা তাঁর একজন সহকর্মী যিনি বিএনপি বিট করেন, তিনি করেছেন।

এ সময় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষে আমরা একটি প্রতিবাদলিপিও পাঠাই বলেও উল্লেখ করেন মন্ত্রী।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই