মেইন ম্যেনু

হিন্দু পল্লীতে হামলার ঘটনায় আ’লীগ নেতা গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু পল্লিতে হামলার ঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ আবদুল আহাদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা সদরের ঘোষপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নাসিরনগর থানার ওসি আবু জাফর জানান, বিকাল চারটার দিকে নাসিরনগর থানা পুলিশ ঘোষপাড়া এলাকায় আবদুল আহাদের নিজ বাড়ি থেকে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

গত ৩০ অক্টোবর হিন্দু পল্লীতে হামলা চালানোর ঘটনায় তার সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে জানান ওসি।

তিনি বলেন, গ্রেফতারের পর পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জেলা গোয়েন্দা কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ অক্টোবর ফেসবুকে পবিত্র কাবা শরীফ নিয়ে ব্যাঙ্গচিত্র করে পোস্ট দেয়ার অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মামলায় গ্রেফতার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের হরিণবেড় গ্রামের জগন্নাথ দাসের ছেলে রসরাজ (৩০) দাসের ফাঁসির দাবিতে উত্তাল হয়ে ওঠে নাসিরনগর উপজেলা। পরদিন (৩০ অক্টোবর) মাইকিং করে সমাবেশ ডাকে দুটি ইসলামী সংগঠন। সমাবেশ শেষ হওয়ার পরপরই দুস্কৃতিকারীরা নাসিরনগর উপজেলা সদরে তাণ্ডব চালায়। এসময় দুস্কৃতিকারীরা উপজেলার অন্তত ১০টি মন্দির ও শতাধিক ঘর-বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এরপর ৪ নভেম্বর ভোরে ও ১৩ নভেম্বর ভোরে দুস্কৃতিকারীরা আবারও উপজেলা সদরে হিন্দু সম্প্রদায়েরর অন্তত ৬টি ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে।






মন্তব্য চালু নেই