মেইন ম্যেনু

হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান পরিষদ নেতাকে কোপালো দুর্বৃত্তরা

ফরিদপুর জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অলোক সেনকে কুপিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ভর্তি করা হয়েছে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ফরিদপুর শহরের দক্ষিণ চরকমলাপুরে তার নিজ বাড়ির সামনে তিনি হামলার শিকার হন।

অলোক সেন জেলা সদরের দক্ষিণ চরকমলাপুর গ্রামের বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজিমুদ্দিন বলেছেন, খবর পাওয়ার পরে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠানো হয়। কারা হামলায় জড়িত সে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অলোক সেনের স্ত্রী শিখা সেন জানান, বিকেলে বাড়ি থেকে বের হচ্ছিলেন তিনি। বাড়ির গেট পার হতেই মুখোশ পরা দুই অস্ত্রধারী তার ওপর হামলা চালায়। তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

শিখা সেন আরো জানান, অলোক সেনের চিৎকারে তিনি বাড়ি থেকে বের হয়ে তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে গেলে তিনিও হামলার শিকার হন। মুখোশ পরা হামলাকারীরা তাকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়। পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

স্থানীয়রা জানায়, গুরুতর জখম অবস্থায় অলোক সেনকে উদ্ধার করে দ্রুত ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে তার অস্ত্রোপচারের জন্য অপারেশন থিয়েটারে (ওটি) নেয়া হয়।

চিকিৎসরা জানিয়েছে, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে অলোক সেন গুরুতর জখম হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে।






মন্তব্য চালু নেই