মেইন ম্যেনু

হিলারির ই-মেইল ফাঁসের তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে হিলারি ক্লিনটনের অফিসের কাজে ব্যক্তিগত ই-মেইল ব্যবহারের তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই)। তবে প্রতিবেদনে হিলারির বিরুদ্ধে কোনো অপরাধ সংগঠনের অভিযোগ দায়েরের সুপারিশ করেননি এফবিআই। মূলত রিপোর্টে হিলারিকে দায়মুক্তি দেয়া হয়েছে।

৫৮ পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হিলারি এবং তার সহকর্মীরা দায়িত্বে অবহেলা করলেও তারা জেনেশুনে স্পর্শকাতর কোনো তথ্য আদান-প্রদান করেননি।

এর আগে ব্যক্তিগত সার্ভার ব্যবহারের মাধ্যমে হিলারি ক্লিনটন আইন ভঙ্গ করেছেন কি না এই বিষয়ে জুলাই মাসে একবছরের তদন্ত শেষ করে এফবিআই।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম খবরটি নিশ্চিত করেছে।

এফবিআই পরিচালক জেমস কোমে জানান, হিলারি বিরুদ্ধে কোন ফৌজদারি মামলা করার কথা হচ্ছে না। তিনি বলেন, “অফিসের কাজে ব্যক্তিগত ই-মেইল ব্যবহার করে ‘প্রচণ্ড দায়িত্বহীন’ কাজ করেছে হিলারি। কিন্তু ব্যক্তিগত ই-মেইলের মাধ্যমে ইচ্ছাকৃতভাবে কাউকে গোপন তথ্য সরবরাহ করেননি তিনি।”

তিনি আরও বলেন, হিলারি সেসময় ব্ল্যাকবেরিসহ ১৩টি ব্যক্তিগত মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করেছেন। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি ধ্বংস করা হয়েছে। আর বাকিগুলো খুঁজে পাওয়া যায়নি। এই মোবাইলে হ্যাকিং প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করেছে এফবিআই।






মন্তব্য চালু নেই