মেইন ম্যেনু

হিসাব দিতে অতিরিক্ত সময় চেয়েছে বিএনপিও

রাজনৈতিক দল হিসেবে আয়-ব্যয়ের হিসাব দাখিল করতে আওয়ামী লীগের মতো অতিরিক্ত দেড় মাস সময় চেয়ে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আবেদন করেছে বিএনপিও।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীনের নেতৃত্বে ২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ইসি সচিব সিরাজুল ইসলামের কাছে এ আবেদন করেন।

এ সময় তারা দলটির পক্ষে দেড় মাস অর্থাৎ ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অতিরিক্ত সময় চেয়ে আবেদন করেন।

আসাদুল করিম শাহীন বলেন, ‘আমরা আইন অনুসারে ইসিতে আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে অতিরিক্ত সময় চেয়ে আবেদন করেছি। সচিব না থাকায় তার পক্ষে অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান আবেদন পত্রটি গ্রহণ করেন। সময় বৃদ্ধি করা হবে কি না এ বিষয়ে এখনো কোনো কিছু জানানো হয়নি।’

এ সময় ভোটার তালিকা হালনাগাদ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘১৮ কম বয়সীদের নিবন্ধন করা সংবিধান লঙ্ঘন। এ বিষয়ে আমাদের দল গতকাল আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া ব্যক্ত করেছে। কমিশনের পদত্যাগ চেয়ে ও হালনাগাদ নিয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদনও দাখিল করেছি। এখন উনি বিষয়টি দেখবেন।’

এর আগে গত রোববার (২৬ জুলাই) আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে অতিরিক্ত ১ মাসের সময় চেয়ে কমিশনে আবেদন করা হয়।

গত ১৭ জুন দেশের ৪০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ২০১৪ সালের আয়-ব্যয়ের হিসাব দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছিল ইসি।

আইন অনুযায়ী, দলগুলোকে প্রতিবছর ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে বিগত অর্থবছরের আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে হয়। তবে পরপর তিন বছর কোনো দল হিসাব জমা না দিলে সংশ্লিষ্ট দলের নিবন্ধন বাতিলের বিধান রয়েছে।

বর্তমানে ইসিতে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সংখ্যা ৪০টি। বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী আগে নিবন্ধিত থাকলেও হাইকোর্টের এক আদেশে তা বাতিল করেছে ইসি। তাই ২০১৩ সাল থেকে দলটিকে কোনো চিঠি বা নির্দেশনা পাঠাচ্ছে না কমিশন।

এদিকে পরপর দু’বছর আয়-ব্যয়ের হিসাব ঠিকমত না দেয়ায় শেষ সুযোগ পাচ্ছে গণফ্রন্ট। এবার ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে হিসাব জমা না দিলে দলটির নিবন্ধন বাতিল করবে ইসি।

তবে এখন পর্যন্ত কেবল বাংলাদেশ মুসলিম লীগ বিগত বছরে তাদের আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিয়েছে। দলটি হিসাবে আয় দেখিয়েছে তিন লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং ব্যয় দেখিয়েছে তিন লাখ ৩৯ হাজার টাকা।






মন্তব্য চালু নেই