মেইন ম্যেনু

‘হুজি-জেএমবি-এবিটি-শিবিরই আইএস সেজেছে’

হরকাতুল জিহাদ (হুজি), জামা’আতুল মুজাহিদীন (জেএমবি), আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি) ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের মতো সংগঠনগুলো এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে ইসলামিক স্টেট (আইএস) সেজেছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

আজ শুক্রবার সকালে কক্সবাজারে নবনির্মিত আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, আইএসে কোনো বিদেশি লোক নেই। দেশের মাত্র কয়েকজন বিপথগামী যুবক দেশের মুখে আইএসের কালিমা লাগিয়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, ‘যারা জেএমবি, হুজি—এই সমস্ত নামে যারা আত্মপ্রকাশ করেছিল, এরা কোনো সময় আল-কায়েদা হতে চেয়েছে, কোনো সময় তালেবান হতে চেয়েছে, এখন তারা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আইএস হতে চাচ্ছে। এগুলোর মূলোৎপাটন করার জন্য আমরা সর্বপ্রকার প্রচেষ্টা নিয়েছি। এবং নিরাপত্তা বাহিনী অবশ্যই সেগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে।’

বাংলাদেশের মাটিতে কোনোভাবেই জঙ্গিদের আস্তানা গড়তে দেওয়া হবে না মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কোনো বিচ্ছিন্নতাবাদীকে বাংলাদেশের এক ইঞ্চি মাটিও ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না। বাংলাদেশে আইএসের কোনো স্থান নেই। অতীতে যারা যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে জড়িত ছিল, যারা স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছে, তারাই এখন জঙ্গিবাদে লিপ্ত। দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে, যুদ্ধাপরাধের বিচার বিলম্বিত করতেই তারা নানা অপকৌশল নিচ্ছে।

এ ছাড়া দেশের পাসপোর্ট খাতে ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের সাফল্যের পর এখন দেশ ই-পাসপোর্টের দিকে এগোচ্ছে। খুব শিগগির এ কাজ বাস্তবায়িত হবে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাসুদ রেজোয়ান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য যথাক্রমে আবদুর রহমান বদি, আশেক উল্লাহ রফিক ও মো. ইলিয়াছ।






মন্তব্য চালু নেই