মেইন ম্যেনু

হোটেলে বসে মনিটরিং হচ্ছে: কঠোর নিরাপত্তায় থাকবে প্রতিটি দল

আইসিসি অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট বাংলাদেশে অংশ নেয়া প্রতিটি দলের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা হোটেলে বসেই মনিটরিং করবে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এতে করে কোন টিম কোথায় যাচ্ছে সেটিও মনিটরিং করা যাবে। এছাড়া থাকবে র‌্যাবের বোম্ব স্কোয়াড, ডগ স্কোয়াড ও যানবাহন স্ক্যানার। অংশ নেয়া প্রতিটি দলের সঙ্গে স্কোয়াডের পাশাপাশি র‌্যাবের সাদা পোশাকে একটি গোয়েন্দা দলও থাকবে। এছাড়াও প্রতিটি ভেন্যুতে র‌্যাবের অপারেশন কমান্ড সেন্টার থাকবে।

শনিবার দুপুরে ‘আইসিসি অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট বাংলাদেশে’ উপলক্ষে র‌্যাবের পক্ষ থেকে নেয়া সার্বিক নিরাপত্তা বিষয়ে জানাতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ। রাজধানীর ল্যা ম্যারিডিয়ান হোটেলে এ আয়োজন করা হয়। এ সময় আইসিসির সিকিউরিটি ম্যানেজার শন ন্যারিস উপস্থিত ছিলেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘আগামী ২৭ জানুয়ারি থেকে চার জেলার আট ভেন্যুতে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট শুরু হচ্ছে। এ জন্য বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বিশ্বকাপ ক্রিকেট, এশিয়া কাপ ও টি-২০’র বড় আসর সফলভাবে আমরা আয়োজন করেছি। সকল নিরাপত্তা পর্যালোচনা করেছি। আইসিসি, বিসিবির নিরাপত্তা দলের সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে। তাদের সঙ্গে আমরা নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট ব্যাপার নিয়ে আলোচনা করেছি। তারা নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।’

র‌্যাবের ডিজি বলেন, ‘পুরো নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হবে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রতিনিয়ত আপডেট করা হবে। আর এ ধারা অব্যাহত থাকবে বিশ্বকাপের শেষদিন পর্যন্ত। এ জন্য সবার সহযোগিতাও প্রয়োজন।’






মন্তব্য চালু নেই