মেইন ম্যেনু

হ্যাকারদের ফাঁদ থেকে রক্ষার উপায়

ব্যস্ত জীবনের কঠিন কাজকে সহজ করতে তৈরি হচ্ছে নানা ধরনের অ্যাপস। প্রযুক্তির উন্নতির সুবাদে নিত্যদিনের সব কিছুই অ্যাপনির্ভর হয়ে গেছে। আর অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মানেই তো অ্যাপসের খেলা। এখানে ব্যবহার করা হয় অসংখ্য অ্যাপস। ফলে প্রতিদিন এই ভান্ডারে যোগ হচ্ছে অসংখ্য নতুন নতুন সব অ্যাপস।

এই অ্যাপস ব্যবহার করতে গিয়ে নানাভাবে ভোগান্তির শিকার হয়েছে এমন ব্যবহারকারীর সংখ্যাও কম না। কেননা এতো সব অ্যাপসের মধ্যে অনেক অ্যাপই রয়েছে যেগুলো ক্ষতিকর ম্যালওয়্যারে ভরা।

অন্যভাবে বলা যায় ইন্টারনেট চিরশত্রু হ্যাকারদের পাতা ফাঁদ। অনেক সময়ই নতুন কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করার আগে আমরা অ্যাপটি সম্পর্কে খুঁটিনাটি না পড়েই ডাউনলোড করে ফেলি। ফলে ম্যালওয়্যার ঢুকে পড়ে স্মার্টফোনে এবং তথ্য চলে যায় হ্যাকারদের হাতে।

এই অবস্থার হাত থেকে রক্ষা পেতে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে। তাহলেই আর এ রকম সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না কাউকে।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডাউনলোড করার কিছু টিপস-
প্রযুক্তি প্রেমিরা পছন্দের গেইম, সমস্যা সমাধানের জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে নানা ধরণের অ্যাপস ডাউনলোড করে থাকে। গুগল প্লে স্টোর ছাড়া কোনো থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট থেকে পছন্দের অ্যাপ ডাউনলোড না করাই ভালো। বেশির ভাগ থার্ড পার্টি ওয়েবসাইটে ম্যালওয়্যার আক্রমণের সম্ভাবনা থাকে বেশি।

অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় বিভিন্ন কোম্পানির অ্যাপস দেখায়। এ ক্ষেত্রে গুগলের সুপারিশ করা অ্যাপ বা পরিচিত ডেভেলপারের তৈরি অ্যাপ ডাউনলোড করাই ভাল। কারণ অপরিচিত কোম্পানির অ্যাপসের মধ্যে ম্যালওয়্যার থাকার সম্ভাবনা থাকে। আর কেউ ভুল করেও এমন সব কোম্পানির অ্যাপ ডাইনলোড করলে সঙ্গে সঙ্গে আনইনস্টল করতে হবে।

অনেক ক্ষেত্রে অ্যাপ ডাউনলোড করা সময় নানা অফার দেয়া থাকে। যেমন- ওয়ালপেপার বা গেমিং অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় সেই অ্যাপ সংস্থার পক্ষ থেকে যদি আনলিমিটেড ইন্টারনেটের মতো লোভনীয় অফার থাকে, তাহলে সে সব অ্যাপ ডাউনলোড না করাই ভাল। কারণ এখানে ভেজালের সম্ভাবনা রয়ছে।

ব্যবহারকারী তার প্রয়োজনে নির্দিষ্ট অ্যাপ ডাউনলোড করেন। কিন্তু এই অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্টস, লোকেশন ইত্যাদি ব্যক্তিগত তথ্য চাইলে সে সব অ্যাপ ডাউনলোড করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় আরেকটি বিষয় সর্তকতার সঙ্গে করতে হবে। অনেকে ওই অ্যাপ সম্পর্কে ভালো-মন্দ রিভিউ দিয়ে থাকেন। তাদের রিভিউ পড়ে বুঝা যায় অ্যাপটি কতখানি ইউজার ফ্রেন্ডলি। তাই অ্যাপ ডউনলোড করার আগে রেটিং ও রিভিউ দেখে নিতে হবে।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ‘গুগল প্লে স্টোর’ থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় অ্যাপটির ‘অ্যাডিশনাল ইনফরমেশন’ দেখে নেয়া। এখানে অ্যাপ সম্বন্ধে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে। যেমন-ইনস্টল, অ্যাপের সাইজ, আপডেট সময়, ডেভেলপারের বিবরণ সব তথ্যই এখানে দেয়া থাকে। এসব বিষয়ে একটু সচেতন হয়ে অ্যাপ ডাউনলোড করলে হ্যাকাররা কারো তথ্য হাতিয়ে নিতে পারবে না।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই