মেইন ম্যেনু

হ্যালুসিনেশন অসুস্থতা নয়, স্বাভাবিক প্রক্রিয়া

প্রায়ই হ্যালুসিনেশন বা ভ্রমকে মানসিক সমস্যা বলে অভিহিত করা হলেও এটা আসলে মস্তিস্কের একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া বলে দাবি করলেন বিজ্ঞানীরা। সম্প্রতি প্রসিডিং অফ ন্যাশনাল একাডেমি অফ সাইন্সে প্রকাশিত এক জার্নালে এমনটাই দাবি করেন কেম্ব্রিজ ও কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক।

বাস্তবে কোনো দৃশ্য এবং শব্দ নেই; এমন কোনো অভিজ্ঞতাই মূলত হ্যালুসিনেশন। অনেক সময় ড্রইংরুমে নড়ে ওঠা বিড়ালকেও এর জন্য অনেক অস্বাভাবিক মনে হয়। কেম্ব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক পল ফ্লেচার বলেন, ‘আগে থেকেই অনুমান করে নেয়া কোনো বিষয়ই আসলে জটিল এক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমাদের কিছু অস্বাভাবিক অভিজ্ঞতার জন্ম দেয়। সেটাই আসলে হ্যালুসিনেশন।’

কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথ গবেষণায় কেম্ব্রিজের একটি দল আবিস্কার করে, হ্যালুসিনেশন কোনো মানসিক ব্যাধি নয়। এজন্য তারা গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের প্রথমে সাদা-কালো ছবি দেখান। আস্তে আস্তে সেখানে রং যুক্ত হতে থাকে। ছবিটি সম্পূর্ণ রঙিন হওয়ার পর দেখা যায় যাদের হ্যালুসিনেশনের মতো সমস্যা ছিলো তারা সম্পূর্ণ সু্স্থদের চেয়ে ভালো করেছেন।

কেম্ব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের নরেশ সুব্রানিমানিয়াম বলেন, ‘এই তথ্যগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এতে করে মানসিক ব্যধিগুলো সম্পর্কে আরো সুস্পষ্ট ধারণা পাবো আমরা। স্বাভাবিক মস্তিস্কের চেয়ে একটু অসুস্থ ব্যক্তিরা এতে ভালো করছেন। সামনে কী হতে যাচ্ছে, তা সম্পর্কে তারাই বেশি নিশ্চিত হতে পারছেন।

সূত্র: দ্য ইন্ডিডেন্ডেন্ট






মন্তব্য চালু নেই