মেইন ম্যেনু

১০,০০০ কুকুর জবাই করে মহোৎসব!

দক্ষিণ চীনের ইউলিন প্রদেশে কুকুরের মাংস দিয়ে মহোৎসব উদযাপন করা হয়েছে। কঠোর সমালোচনা ও পশু অধিকার কর্মীদের প্রতিবাদ করা সত্ত্বেও তারা এই উৎসব পালন করেছেন। তাদের এই উৎসবের নাম ‘বার্ষিক কুকুরের মাংস খাবার উৎসব।’

বিক্রেতারা কুকুর জবাই করে শহরের বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় রান্না করে। তারা নিষ্ঠুরতার চরমে পৌঁছে গেছে। আন্তর্জাতিকভাবে এতো ক্ষোভ প্রকাশের পরও তারা এই ঘৃণিত কাজটি করেছে।

প্রতিবছর ২১শে জুন চীনের ইউলিন প্রদেশে এই উৎসব পালন করা হয়। সারা শহর জুড়ে তারা পোষা কুকুর চুরি করে নেয়। এরপর সেই কুকুর হত্যা করে কুকুরের মাংস সংগ্রহ করা হয়। এই উৎসব যারা পালন করছেন তারা বলছেন এটা তাদের ঐতিহ্য।

কিন্তু চীনের আরেকদল বলছে, তাদের এরকম কোন ঐতিহ্য কখনও ছিল না। এ বিষয়ে চীনের চংকিংয়ের একজন ভলেন্টিয়ার বলেন, ‘আমরা ইউলিনে এসেছি এখানের সবাইকে বুঝাতে যে, কুকুর আমাদের বন্ধুর মত। এভাবে কুকুরদের হত্যা করা ঠিক নয় এবং তারা পোষা কুকুরদের হত্যা করছে।’

প্রতি বছর ১০ থেকে ২০ মিলিয়ন কুকুর হত্যা করে মাংস সংগ্রহ করা হয়। এসব কুকুর রাস্তা থেকে ধরে আনা হয় এবং অনেক পোষা কুকুরও ধরে আনা হয়। চীনের এই প্রদেশে খাবারের সংকট প্রায়ই দেখা যায়। খাদ্য সংকট কমাতে তারা এই অসুস্থ পন্থা বেঁছে নেয়।

সরকার এই বছর এই ব্যবসা বন্ধ করার জন্য অনেক ব্যবস্থা নিয়েছেন। বিভিন্ন মার্কেট ও রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ বছর ১০,০০০ কুকুর হত্যা করা হয়েছে বলে জানা যায়।–সুত্র: ইন্ডিয়া টাইম্‌স।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই