মেইন ম্যেনু

১০ বছরে টেলিটকের লোকসান প্রায় ৪শ কোটি টাকা

বিগত ১০ বছরে সরকারি খাতের মোবাইল অপারেটর কোম্পানি টেলিটক ৩৯৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকা লোকসান করেছে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম; যেখানে ২০১৫ সালের প্রথম নয় মাসে গ্রামীণফোনের রাজস্ব আয় হয়েছে ৭৭৯০ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার দশম জাতীয় সংসদের অষ্টম অধিবেশনে নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে বিরোধীদলীয় সাংসদ কাজী ফিরোজ রশীদের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। টেলিটকের নেটওয়ার্ক দুর্বলতা কাটাতে এবং মান বাড়াতে কী ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বা হবে তা জানতে চেয়েছিলেন এ সাংসদ।

তারানা হালিম জবাবে বলেন, এক মাস হয়েছে আমি এ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছি। বর্তমানে টেলিটকের মোট লোকসান ৩৯৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকা। তবে টেলিটকের যেসব দুর্বলতা রয়েছে তা কাটাতে বেশ কিছু নতুন পদক্ষেপ হাতে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশের প্রত্যেকটি পোস্ট অফিসে একটি করে কামরা থাকবে যেটি টেলিটকের কাস্টমার কেয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হবে। টেলিটককে নতুন করে ব্র্যান্ডিং করা হবে। থ্রিজি সেবা আরো বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

টেলিটক শুধু ব্যবসা না করে সেবার বিষয়েও বেশি মনোযোগী থাকে উল্লেখ করে তারানা হালিম বলেন, দেশের দুর্গম অঞ্চল, যেখানে অন্যান্য বেসরকারি মোবাইল অপারেটররা ব্যবসার কথা মাথায় রেখে নেটওয়ার্ক বৃদ্ধি করে না, সেখানে টেলিটকের টাওয়ার বসিয়ে কাজ করতে হয়। যেখানে ব্যবসার চেয়ে সেবার বিষয়টিই বেশি প্রাধান্য পায়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় কি শুধু সিম ও রিম নিবন্ধনেরই কাজ করবে- এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা দেশের প্রত্যেকটি ডাক বিভাগকে আধুনিক করতে নিরলস পরিশ্রম করছি। নতুন ডাক ভবন নির্মাণ করছি। দেশীয় প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ট্যাব তৈরি করছি। ডিসেম্বরের মধ্যেই ১০ হাজার ট্যাব প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করবো। আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে দেশের চাহিদা মিটিয়ে এটি আমরা বাণিজ্যিকভাবে রপ্তানি করবো।






মন্তব্য চালু নেই