মেইন ম্যেনু

১১৪ ইউপিতে প্রার্থী নেই বিএনপির

নির্বাচন কমিশনে (ইসি) প্রার্থিতা বাতিল আর সরকারি দলের হুমকি-ধমকির কারণে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ১১৪ ইউনিয়নে বিএনপির কোনো প্রার্থী নেই বলে জানিয়েছেন দলের যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার‌্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, সরকারি দলের প্রার্থীদের বিজয়ী করতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) মরিয়া হয়ে উঠেছে। তুচ্ছ অজুহাতে স্থানীয় নির্বাচন কর্মকর্তারা বিএনপির মনোনীত প্রার্থীদের প্রার্থিতা বাতিল করছেন। এতে প্রায় ১১৪ জনের মতো বিএনপি-মনোনীত প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা হারিয়েছেন। এ ছাড়া সরকারি দলের লোকজনের বাধা দান, হুমকি-ধমকির কারণে বিএনপির অনেক প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেননি।

ইউপি নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য কমিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করছেন নির্বাচন কমিশন, এমন অভিযোগ করে রিজভী আহমেদ বলেন, “এমনকি নির্দেশনাও শিথিল করা হচ্ছে। কী উদ্দেশ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সংখ্যা কমানো ও নির্দেশনা শিথিল হচ্ছে, কেন কেন্দ্রপ্রতি তিনজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যসংখ্যা কমিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে তা সবার কাছে অত্যন্ত সুস্পষ্ট।”

রিজভী বলেন, “আগে পৌরসভা নির্বাচনে কমিশনের নির্দেশনা ছিল যে, ‘পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে অস্ত্র হাতে বসে থাকলে চলবে না।’ অথচ এবার আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে কোনো জোরালো নির্দেশনা দেয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে। এসব পরিকল্পনা ও নির্দেশনার উদ্দেশ্য হলো ইউপি নির্বাচনে শাসকদলের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের জিতিয়ে দেয়ার মহাপরিকল্পনা।”






মন্তব্য চালু নেই