মেইন ম্যেনু

১২ বছর ধরে শ্মশান পরিচালনা করছেন পারভিনা, কেন তিনি এই পেশায়?

সাধারণত কোন হিন্দু নারী শ্মশানে যান না। কিন্তু চেন্নাইয়ের এক নারী পারভিনা সলোমান সেখানকার বড় ও ব্যস্ত একটি শ্মশান পরিচালনার কাজ করছেন। কেন তিনি এই পেশা বেছে নিয়েছেন?

চেন্নাইয়ের আন্না নগর জেলায় অবস্থিত ভালানকাডু শ্মশান সেখানকার বড় ও ব্যস্ততম একটি শ্মশান। আর এখানকার পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন মিস সলোমান।

একটি মৃতদেহ এখানে আসার পর তা কিভাবে সৎকার করা হবে সেসব বিষয়ে তত্ত্বাবধান করেন তিনি। তাঁর কাজ কিছুক্ষণ দেখলেই বুঝতে পারা যায় কতটা দক্ষতার সাথে তিনি এটি করছেন।

বিবিসিকে সলোমান বলেন, তামিলনাড়ুতে শিক্ষার হার অনেক,এখানকার ৯০ শতাংশ নারী শিক্ষিত। কিন্তু তারপরও অনেক বাধা-নিষেধের মুখে পড়তে হয় এদের।

তিনি বলেন, একটা নারী শ্মশানের কার্যক্রম পরিচালনা করছে অনেকেই এটা স্বাভাবিকভাবে নেয় না। কেউ আমাকে বিদ্রুপ করে, কেউ পাশ থেকে বাজে মন্তব্য করে। তারা প্রশ্ন করে যে আমি কোন ধরনের পরিবারের মানুষ? হয়তো খারাপ মানুষ তাই এ কাজে আসছি। এসব কথা আসলে কষ্ট দেয়।

তারা প্রথমে মিস সলোমানকে এসিড নিক্ষেপের হুমকিও দেয়। তবে আস্তে আস্তে তারা বুঝতে পারে তারা কারও চাকরি নেয়ার ক্ষমতা রাখে না। সময় বদলে গেছে।

প্রায় বারো বছর ধরে এই শ্মশান পরিচালনার কাজে সাথে যুক্ত আছেন পারভিনা সলোমান।






মন্তব্য চালু নেই