মেইন ম্যেনু

১৬ বছরের কিশোরীকে ৩৩ জন মিলে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ!

বর্বরতার এমন চিত্র দেখে ফুঁসে উঠেছে ব্রাজিলের মানুষ। ৩৩ জন পুরুষ মিলে ধর্ষণ করেছে ১৬ বছরের এক কিশোরীকে! তারপর আবার সেই ভিডিও পোস্ট করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এ ঘটনায় রাজধানী রিও ডি জেনিরোসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ হয়েছে। অনেক জায়গায় সড়ক অবরোধও করেছেন বিক্ষুব্ধরা।

পুলিশ জানায়, গত শনিবার ওই কিশোরী রিও ডি জেনিরোতে তার প্রেমিকের বাড়িতে গিয়েছিলেন। সেখানেই তাকে পানীয়র সঙ্গে খাইয়ে দেওয়া হয় ঘুমের ওষুধ। পরের দিন সকালে ঘুম ভাঙার পর ওই কিশোরী দেখে, তাকে অন্য একটি বাড়ির শোয়ার ঘরে রাখা হয়েছে। আর তাকে ঘিরে রেখেছে ৩৩ জন পুরুষ। তাদের সবার কাছেই ছিল পিস্তল ও রাইফেল। এ সময় তারা একে একে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

ওই কিশোরীর পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, পরদিন ওই কিশোরী যখন বাসায় ফেরেন তারা প্রথমে কিছু বুঝতে পারেননি। সেও বাড়ির কাউকে কিছু জানায়নি। বুধবার তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ধর্ষণের ভিডিওটি দেখতে পান।

ধর্ষণকারীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি ছড়িয়ে দিয়ে তাতে লিখেছে ‘এটাই ব্রাজিলের সংস্কৃতি।’।

এ ঘটনার পরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভের ঝড় উঠেছে। বিক্ষুব্ধ অনেকে রাস্তায় নেমে এসেছেন জড়িতদের বিচারের দাবিতে। পুলিশ ইতিমধ্যে ওই কিশোরীর প্রেমিকসহ চারজনকে আটক করেছে।

প্রসঙ্গত, ধর্ষণসহ যৌন অপরাধ ব্রাজিলের নৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রায়ই অস্ত্রধারীদের যৌন নিপীড়নের শিকার হয় দরিদ্র শ্রেণির নারী-কিশোরীরা। আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার মতো আর্থিক সংগতি এই শ্রেণির লোকদের থাকে না বলে নির্যাতনের জন্য তাদেরই বেছে নেয় অপরাধীরা।






মন্তব্য চালু নেই