মেইন ম্যেনু

১৮ বছরের নিচে যেন কেউ ছবিটি না দেখে

এ কথা খোদ পরিচালকই বলছেন। তন্ময় তানসেন পরিচালিত দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘রান আউট’ মুক্তি পাবে আর ক’দিন পরই। এর ঠিক একসপ্তাহ আগেই জনপ্রিয় এক অনলাইন নিউজ পোর্টালের সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি বললেন, ‘আমি চাই, ১৮ বছরের নিচে যেন কেউ ছবিটি না দেখে।’ শুধু এটাই নয়, অনলাইনে যে পোস্টারগুলো দিয়ে ‘রান আউট’-এর প্রচারণা চালানো হচ্ছে, বেশিরভাগ পোস্টারেই তিনি সেঁটে দিয়েছেন ‘১৮+’।

অথচ সেন্সর বোর্ড ছবিটিকে বিনা কর্তনে ছাড়পত্র দিয়েছে। তার মানে, খুব বেশি যে যৌনতার ছড়াছড়ি রয়েছে পুরো ছবিজুড়ে, সেটাও বিশ্বাস করার কোনো কারণ নেই। তাহলে? অনেকে বলছেন, ওসব কিছু নয়! নিছক প্রচারণার জন্যই পরিচালকের এই ভিন্ন কৌশল!

এ প্রসঙ্গ তুলে ধরলে তন্ময় বলছেন, ‘যৌনতার ছড়াছড়ি থাকলে ছবিটি তো সেন্সরই পেতো না। প্রচারণার কৌশল নয়, আমি নীতিগত জায়গা আর সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকেই সতর্ক করে দিচ্ছি দর্শকদের।’ কারণ? ‘রান আউট’-এর উপাদান। অপরাধজগত, সম্পর্ক, ষড়যন্ত্র- সব মিলিয়ে এক অন্ধকার জগতের গল্প রয়েছে ছবিটিতে।

তাই পরিচালকের মনে হয়েছে, ‘আঠারো বছর বয়সের নিচে কারও এ ছবিটি না দেখাই ভালো।’আগামী ১৬ অক্টোবর প্রায় অর্ধশত প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে ‘রান আউট’। এতে অভিনয় করেছেন সজল, মৌসুমী নাগ, তারিক আনাম খান, ওমর সানি, রোমানা স্বর্ণা, মিশা সওদাগর প্রমুখ। আইটেম গানে নেচেছেন নায়লা নাঈম।






মন্তব্য চালু নেই