মেইন ম্যেনু

১৮ বছর মামলা চলে ১০ বছরের কারাদণ্ড

রাজধানীর সবুজবাগ থানার একটি ছিনতাই মামলায় মামলা দায়েরের দীর্ঘ আঠারো বছর পর অভিযুক্ত দুই ছিনতাইকারীকে দশ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আাদলতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান ওই রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বিচারক প্রত্যেক আসামিকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয়মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, রিপন ও আনোয়ার। এজাহার অনুযায়ী উভয়ই খিলগাঁওয়ের বাসিন্দা। এদের মধ্যে আসামি রিপন কারাগারে থাকলেও অপর আসামি আনোয়ার রয়েছেন পলাতক।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ১৯৯৭ সালের ১ আগস্ট মামলার বাদী সাইদুজ্জামান খানের স্ত্রী হাসিনা জাহান (৩৫) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বেবিট্যাক্সিতে মৌচাক যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। বেবিট্যাক্সিটি খিলগাঁও তিলপাপাড়া মোল্লা হোটেলের সামনে পৌঁছালে দন্ডিত দুই যুবক বেবিট্যাক্সির গতিরোধ করে হাসিনাকে ঘুষি মেরে তার হাতে থাকা ভ্যানিটি ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়। এ সময় তার চিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে এসে ভ্যানিটি ব্যাগসহ দণ্ডিত দুই যুবককে ধরে ফেলে। এই ঘটনার পর বাদী সবুজবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

খিলগাঁও থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক ফজলুর রহমান মামলাটি তদন্ত করেন।

১৯৯৭ সালের ১ অক্টোবর মামলাটিতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। অভিযোগপত্রে মোট সাতজনকে সাক্ষী করা হলেও বিচারক তিনজনের সাক্ষ্য গ্রহন করেন।

দীর্ঘ প্রায় আঠারো বছর পর এই ছিনতাই মামলাটির রায় দিলেন আদালত। এখানে উল্লেখ্য যে, বর্তমান বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান মাস দুয়েক আগে ওই আদালতে যোগদান করেন।






মন্তব্য চালু নেই