মেইন ম্যেনু

১৯ বছর বয়সেই ৮ হাজার কোটির মালিক এই তরুণী

মাত্র ১৯ বছর বয়সেই বিলিয়নেয়ার আলেকজান্দ্রা অ্যান্ডারসন। এত অল্প বয়সে ফোর্বসের শতকোটিপতির তালিকায় নাম লেখানো নরওয়ের এই যুবতীই বিশ্বের কনিষ্ঠতম বিলিয়নেয়ার।

আলেকজান্দ্রা ১.২ বিলিয়ন ডলারের মালিক। ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা। তাঁর দিদি ২০ বছরের ক্যাথরিনও বিলিয়নেয়ার। তাঁর মালিকানাতেও রয়েছে ওই একই পরিমাণ অর্থ। সৌজন্যে অবশ্য রয়েছেন আলেকজান্দ্রার বাবা জোহান অ্যান্ডারসন। অসলোর এই বিনিয়োগকারী ২০০৭ সালে নিজের কোম্পানি ফার্ড হোল্ডিং-এর ৪২.২% শেয়ার দুই মেয়ের নামে করে দিয়েছিলেন। সেই শেয়ারেরই দর বেড়ে তাঁর ছোট মেয়ে আলেকজান্দ্রা এখন বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ বিলিয়নেয়ার।

ঘোড়সওয়ারে বিশেষ অনুরাগী আলেকজান্দ্রা ঘোড়সওয়ারদের তালিম দিতেও স্পনসরের ভূমিকা নেন। তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে রয়েছে ঘোড়ার সঙ্গে তাঁর বিভিন্ন মুহূর্তের ছবি। তিনটি রেস চ্যাম্পিয়নশিপে জিতে এখন ঘোড়সওয়ারিকেই কেরিয়ার হিসেবে দেখছেন ১৯-এর এই যুবতী। ভবিষ্যতে পারিবারিক ব্যবসায় যোগ দেওয়ার কোনও ইচ্ছে নেই তাঁর। ঘোড়া ছাড়া আপাতত তাঁর জীবনে রয়েছেন ২৪ বছরের এক হ্যান্ডসাম। জোয়াকিম টোলফসেন নামে ওই যুবক মার্শাল আর্টস ফাইটার।

এত টাকা দিয়ে তিনি কী করেন? এই প্রশ্নের উত্তরে ফার্ডের ম্যাগাজিনে আলেকজান্দ্রা যা বলেছেন, তা শুনলে মনে হবে কোনও মধ্যবিত্ত ঘরের মেয়ে কথা বলছেন। ‘আমি সবসময় সঞ্চয় করি। আমার সাপ্তাহিক হাতখরচের থেকে টাকা বাঁচাই। কম্পিটিশনে জেতা অর্থ কিমবা জন্মদিনে পাওয়া উপহারের অর্থ জমিয়ে রাখি। এর ফলে আমার প্রয়োজন মতো জিনিস আমি নিজেই কিনতে পারি। আমার ব্যাগ বা জুতো কিনতে হলে বাবা-মায়ের কাছে জিজ্ঞেস করে কিনতে হয় না’, বললেন আলেকজান্দ্রা। -ইন্ডিয়াটাইমস






মন্তব্য চালু নেই