মেইন ম্যেনু

২০ হাজার কোটি টাকা দান করবেন সৌদি প্রিন্স তালাল

এক মহতী উদ্যোগ নিয়েছেন সৌদি আরবের রাজকুমার আলওয়ালিদ বিন তালাল। নিজের ২০ হাজার কোটি টাকার সম্পত্তি সমাজের সেবামূলক কাজে দান করার ঘোষণা দিয়েছেন। পবিত্র রমজান মাসে রাজধানী রিয়াদে দুই ছেলেকে পাশে নিয়ে এ ঘোষণা দেন তিনি।

প্রিন্সের সংগঠন আলওয়ালিদ ফিলানথ্রপিস এ অর্থ বিভিন্ন সামাজিক কাজে খরচ করবে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছেন তিনি। সমাজের বিভিন্ন সম্প্রদায়কে সাহায্য করা, রোগ প্রতিরোধে ব্যবস্থা নেয়া, প্রত্যন্ত গ্রামে বিদ্যুত্‍‌ আনা, অনাথ আশ্রম ও স্কুল তৈরি এবং নারীদের ক্ষমতায়ন- এ ধরনের নানা কাজে খরচ করা হবে সৌদি রাজকুমারের অর্থ।

বিনিয়োগকারী সংস্থা কিংডম হোল্ডিং কোম্পানির চেয়ারম্যান আলওয়ালিদ জানিয়েছেন, এরই মধ্যে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে তিনি ৩৫০ কোটি ডলার দান করেছেন এবং বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের স্বাস্থ্যপ্রকল্পে পার্টনার হিসেবে কাজ করেছে তার এ সংস্থা।

‘মানবপ্রীতি হলো ব্যক্তির দায়িত্ব আর গত তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে এটি আমার ইসলামিক বিশ্বাসের একটি অংশ হিসেবে নিয়েছি’, বিবৃতিতে বলেছেন আলওয়ালিদ। ঠিক কবে নাগাদ বা কতদিনে তিনি তার সম্পত্তি দান করবেন এ বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু না জানালেও রাজকুমারের দাবি, নির্দিষ্ট পরিকল্পনা গ্রহণের মাধ্যমে আগামী কয়েক বছরে এই অর্থ দান করবেন তিনি। তাঁর নেতৃত্বে একটি ট্রাস্টি বোর্ড সেই অর্থ দেখাশোনা করবে।

বাবার সম্পত্তি ও স্মার্ট বিনিয়োগে বিপুল অর্থের মালিক হয়েছেন সৌদির এ রাজপুত্র। তার কোম্পানি কিংডম হোল্ডিং ফেয়ারমাউন্ট, দ্য ফোর সিজনস-এর মতো নামি দামি হোটেল এবং টুইটার, অ্যাপল, সিটি গ্রুপের মতো বিভিন্ন নামজাদা কোম্পানির অন্যতম শেয়ারহোল্ডার।

গত কয়েক বছরে এ ধরনের উদ্যোগ নিতে দেখা গেছে বিশ্বের সেরা ধনকুবের ওয়ারেন বাফেট, বিল গেটস, মার্ক জুকারবার্গ ও মাইকেল ব্লুমবার্গের মতো সমাজহিতৈষী ব্যক্তিদের।






মন্তব্য চালু নেই