মেইন ম্যেনু

২১১৬ সালে পানির নিচে বাস করবে মানুষ!

জলের তলায় শহর, থ্রিডি প্রিন্টের বাড়ি আর ডাউনলোড করা খাবার৷ ভাবছেন এতো অলিক কল্পনা৷ তাহলে বলে রাখা ভালো এই স্বপ্ন বা কল্পনাই বাস্তব রূপ পেতে চলেছে৷ অপেক্ষা শুধু এক শতাব্দীর৷

এমনটাই দাবি করা হয়েছে শিক্ষাবিদ ও ফিউচারোলজিস্টদের নিয়ে তৈরি স্যামসাং-এর স্মার্ট থিং ফিউচার লিভিং তাদের রিপোর্টে৷ গবেষণার পর তাদের দাবি, ২১১৬ সালে মানুষ বসবাস করবে মাটির নীচে তৈরি কবরা বহুতল ভবনে৷ পানির তলায় তৈরি হবে শহর, বাড়ি হবে থ্রিডি প্রিন্টেড৷ পানির তলায় ড্রোনে চেপে যাতায়াত করবে মানুষ৷ এমনকি এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে তুলে নেয়া যাবে আস্ত বাড়িটিকেও৷

শুধু তাই নয়, ১০০ বছর পর হলিউড মুভিরস্ক্রিপ্টকেও হার মানাবে মানুষ৷ ডাউনলোড করা যাবে খাবার৷ পছন্দের শেফের ডিশ ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিলেই এক মিনিটেই তৈরি হয়ে যাবে খাবার৷ আর সেই সঙ্গে আর দেশ-বিদেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বাণিজ্যের চাকা গড়াবে প্রতিবেশী গ্রহ চাঁদ ও মঙ্গলে৷

এই রিপোর্টের সহ লেখক তথা মহাকাশ বিজ্ঞানী ডঃ ম্যাগি অ্যাডেরিন পোকক জানিয়েছেন, ‘এক শতাব্দী আগের মানুষের কাছে আজকের দিনটা ছিল স্বপ্ন৷ ইন্টারনেটের বিপ্লব সম্পূর্ণ বদলে দিয়েছে আমাদের জীবন৷ আগামী এক শতাব্দী পরের জীবনটা আমাদের কাছে স্বপ্ন৷ ভূমিম্পনের পরিবর্তনের ফলে বদলে যাবে আমাদের জীবনের নানা দিকও।’-কলকাতা২৪






মন্তব্য চালু নেই