মেইন ম্যেনু

২৪০ বছর আগের রোবট এখনও লিখছে ও আঁকছে !

অনেকেরই ধারণা রোবট মানেই আধুনিক বিজ্ঞানের আবিষ্কার। কিন্তু এখন যদি বলা হয় এই রোবট তৈরির ইতিহাস ২৪০ বছর আগে থেকে। তাহলে অবিশ্বাস্য লাগতেই পারে।

এমন অবিশ্বাস্য লাগলেও এটাই সত্যি যে, আজ থেকে প্রায় আড়াইশ বছর আগের রোবটের সন্ধান পাওয়া গেছে। এ রোবটগুলো বর্তমানে সুইজারল্যান্ডের জাদুঘর ‘মিউজিয়াম অব আর্ট হিস্টরি ইন নিউচাতেলে’ প্রদর্শন করা হচ্ছে।

তবে ইদানিংকালের আধুনিক রোবটের মতো দেখতে না হলেও ২৪০ বছরের পুরনো এই রোবটগুলো করতে পারে অনেক জটিল কাজ। লিখতে এবং আঁকতেও পারে এগুলো। এমনকি বাদ্যযন্ত্রও বাজাতে পারে এরা।

ঘড়ির যন্ত্রের মতো করেই সাজানো এর ভেতরের অংশগুলো। ১৭৬৮ সাল থেকে ১৭৭৪ সালের মধ্যে তৈরি করা ওই রোবটগুলো আজো সচল এবং আগের মতোই কাজ করতে পারে।

সুইজারল্যান্ডের ঘড়ি নির্মাতা হেনরি লুইজ এবং তার পরিবার প্রথম তৈরি করেছিল এই এগুলো। মূলত নিজেদের দক্ষতা প্রদর্শনের জন্যই এই পুতুলের মতো এই রোবটগুলো তৈরি করতো ঘড়ি নির্মাতারা।

এগুলো দেখতে খুবই জীবন্ত। মনে হয়, শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছে। কাজের সময় তাদের চোখগুলোও কাজের দিকেই তাকিয়ে থাকে। আর নারী রোবটগুলো অসাধারণ দক্ষতায় বাজাতে পারে বাদ্যযন্ত্র।






মন্তব্য চালু নেই