মেইন ম্যেনু

২৪ ঘন্টায় স্বামী বদল

২৪ ঘন্টার ব্যবধানে স্বামী বদলের ঘটনা ঘটেছে। চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌরসভার এক গৃহবধু ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে তিন স্বামীর ঘর ভাঙ্গা-গড়ার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি করেছেন।

ওই গৃহবধুর নাম নারগিস বেগম (৪০)। এক লক্ষ টাকা মোহরানা ধার্য্য করে ২২ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বড়কুল পূর্ব ইউনিয়নের নোয়াদ্দা গ্রামের আবুল কাশেমের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পরদিন বুধবার বিকালে আবুল কাশেমকে তালাক দেয়। পরে একই সময় পৌর এলাকার রান্ধুনীমুড়া গ্রামের আলী হোসেনের সাথে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার কাজ শেষ করেন।

৪০ বছর বয়সী এই গৃহবধুর প্রথম বিয়ে হয় কচুয়া উপজেলায়। বছরখানেক পূর্বে ঐ সংসারে দুই সন্তান রেখে স্বামী মারা যায়।

বর্তমানে নারগিস বেগম তৃতীয় স্বামী আলী হোসেনের সংসার করছেন। আর এতে নতুন দম্পতিকে দেখতে উচ্চুক জনতা ভিড় জমাতে দেখা গেছে।

২৪ ঘন্টার ব্যবধানে স্বামী বদল প্রসঙ্গে নারগিস বেগম বলেন, ‘ আবুল কাশেম আমাকে জোর করে বিয়ে করেছে। পরে আলী হোসেন সবকিছু জেনে আমাকে বিয়ে করেন।’

নতুন বর আলী হোসেন (৫০) বলেন, ‘আমার স্ত্রী মারা গেছেন। তাই নারগিসকে বিয়ে করেছি। আবুল কাশেমের সাথে বিয়ের আগে আমিও বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু তাকে জোর করে কাশেম বিয়ে করেছে। তবে রাখতে পারেনি।’

এদিকে আবুল কাশেম (৪৫) বলেন, ‘আমারও স্ত্রী মারা গেছে। তাই বিয়ে করেছিলাম। অথচ একদিন না যেতেই আমাকে তালাক দিয়ে দিলো।’

উল্লেখ্য, নারগিস বেগম হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার ৪ নং ওয়ার্ড মকিমাবাদ এলাকার মৃত জিন্নাত আলী মজুমদারের কন্যা।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই