মেইন ম্যেনু

২৬ নভেম্বর রাজধানী ঢাকা থাকবে বিএনপির দখলে

আগামী ২৬ নভেম্বর রাজধানী ঢাকা থাকবে বিএনপির দখলে। এমনটাই জানিয়েছেন বিএনপি পুনর্গঠনের নেতা কামরুল হাসান নাসিম। তবে ওইদিন কোন কর্মসূচির মাধ্যমে কিংবা কিভাবে ঢাকাকে নিজেদের দখলে রাখবেন তার কোনো ব্যাখ্যা দেননি এ নেতা। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলেও তিনি এটাকে ‘চমক’ বলে মন্তব্য করেন।

বিএনপির মধ্যকার দলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ও অন্যান্য অপরিহার্য করণীয় কিছুর অনুপ্রেরণায় ‘দলীয় বিপ্লব’ ইস্যুতে কবিতার সিডির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে নাসিম শুধুমাত্র এ ঘোষণা দেন। তিনি শুধু বলেন, ‘আমরা দলীয় বিপ্লব করা থেকে আর একটু দূরে রয়েছি।’

‘এসো কান্না করি’ শীর্ষক এই কবিতার সিডির প্রকাশের আসল লক্ষ্য সারাদেশের বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে জাগরণ সৃষ্টি করা, জিয়াউর রহমানের আদর্শের বাস্তবায়ন করা, দেশের মানুষের স্বার্থ সংরক্ষণে উচ্চ আয়ের দেশ করা এবং গেল ২০ বছরের মধ্যে থাকা দলের সব নতুন পুরনো কাউন্সিলরদের নিয়ে দল পুনর্গঠন করা। এমনটাই জানান বিএনপির পুনর্গঠন করার উদ্যোগে এই বছরের ৯ জানুয়ারি সক্রিয় হওয়া কামরুল হাসান নাসিম।

তিনি বলেছেন, ‘আমি বলেছিলাম বিএনপির অসুখ হয়েছে। রোগ সারাতে হবে। বলেছিলাম, হোমিওপ্যাথি দিয়েছি বলেই দলের সিনিয়র নেতারা আজ কিছু কিছু করে দলের গুণগত পরিবর্তন নিয়ে কথা বলছেন। আবার দলে ভাঙন সৃষ্টির জন্যও একাংশ ওঁৎ পেতে আছে। আবার সাবেকদের কেউ কেউ দলের শীর্ষ নেতৃত্ব কেড়ে নেয়ার অপপ্রয়াসে আছেন- যারা এখন সরাসরি দলের সাথে সংযুক্ত নন।’

নাসিম বলেন, ‘কাউকে বাদ দিয়ে পুনর্গঠন নয়, তবে সমকালীন নেতৃত্ব ব্যর্থ হওয়াতে আর কোনো আপোস নয়। আপাতত তাদের দলের সিদ্ধান্ত দেয়া থেকে বিরত রাখতে হবে। গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় দলের নীতি ও কৌশল নির্ধারণ করতে হবে।’
বুদ্ধিদীপ্ত হাসিনা সরকারের সাথে আগামী বছরে এক চিত্তাকর্ষক লড়াই বিএনপির হবে বলে মত দেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই