মেইন ম্যেনু

৩০০ টাকার জন্য জীবন বাজি!

আমরা খেলায় জিততে কতকিছুই না বাজি রাখি। নিজের সখের জিনিস, টাকা-পয়সা কত কি! কিন্তু টাকার জন্য জীবন বাজি? এ এক আশ্চর্য বাজি। যেখানে পরাজয় হলেই জীবনটা দিতে হবে।

অভাবের সংসার। অনেক কষ্টে ব্যানার টাঙানোর কাজটা জুটিয়েছিলেন সৈয়দ আলী (৫০)। মাত্র ৩শ টাকায় মহানগরীর সাহেব বাজার এলাকায় যুবলীগের সম্মেলনের প্রচার ব্যানার টাঙানোর দায়িত্ব নেন তিনি। ব্যানার টাঙাতে উঠেন বিলবোর্ডের ওপরে। সেখানেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন তিনি।

বৃহস্পতিবার নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে। তিনি মহানগরীর আসাম কলোনি এলাকার মৃত তসির আলীর ছেলে। আহত সৈয়দ আলীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সৈয়দ আলী জানান, তিনি ও একই এলাকার ইউসুফ মোল্লা (৪৮) প্রতিদিন জনপ্রতি ৩শ টাকায় ব্যানার টাঙানোর কাজ পান। যুবলীগের সম্মেলনের ব্যানার বিভিন্ন জায়গায় টাঙাচ্ছিলেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে সাড়ে ৪টার দিকে তিনি ও ইউসুফ মোল্লা সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টের বিলবোর্ডে উঠেন ব্যানার টাঙাতে। এ সময় বিলবোর্ডের পাশ দিয়ে চলে যাওয়া বৈদ্যতিক তারের ছোঁয়া লেগে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বিলবোর্ডের ওপরে ছিটকে পড়েন।

সংবাদ পেয়ে রাজশাহী দমকল বাহিনীর কর্মীরা সিনিয়র স্টেশন অফিসার শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করান।

রাজশাহী দমকল বাহিনীর কর্মীরা সিনিয়র স্টেশন অফিসার শরিফুল ইসলাম জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সৈয়দ আলী ছিটকে বিলবোর্ডেই আটকে ছিলেন। যদি তিনি রাস্তায় পড়ে যেতেন তাহলে আরো বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো।






মন্তব্য চালু নেই